নাফনদী দিয়ে এখনো আসছে ইয়াবা, একদিনেই ১০ কোটি টাকার ইয়াবা উদ্ধার

কক্সবাজার সীমান্ত উপজেলা টেকনাফের নাফ নদী দিয়ে এখনো আসছে ইয়াবা। সীমান্ত পয়েন্ট ব্যবহার করে কৌশলে মরণ নেশা ইয়াবা পাচার করছে পাচারকারীরা। তারই ধারাবাহিকতায় টেকনাফ ২ বিজিবি সদস্যরা একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে ৩ লাখ ৩০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে। তবে এই ইয়াবা গুলোর সাথে জড়িত কোন কারবারীকে আটক করতে পারেনি বিজিবি।
বিজিবির সুত্র জানায়, রোববার (৬ অক্টোবার) রাতের প্রথম প্রহরে টেকনাফ ২বিজিবি আওয়তাদ্বীন টেকনাফ বিওপির টহল দলের সদস্যরা গোপন সংবাদে জানতে পারে মিয়ানমার হতে ইয়াবার একটি বড় চালান বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করবে। সেই গোপন সংবাদের তথ্য অনুযায়ী বিজিবি টহল দল সাবরাং বিএসপি পোস্ট সংলগ্ন এলাকায় অবস্থান নেয়। কিছুক্ষণ পর ৫/৬ জন লোক হস্তচালিত একটি কাঠের নৌকা নিয়ে সীমান্তে অনুপ্রবেশ করতে দেখে বিজিবি সদস্যরা চ্যালেঞ্জ করলে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে পার্শ্ববর্তী কেওড়া বন দিয়ে সু-কৌশলে পালিয়ে যায় পাচারকারী দলের সদস্যরা। এরপর ঘটনাস্থল তল্লাশী করে একটি কাঠের নৌকা জব্দ করে নৌকার ভিতর থেকে ৩ লাখ ৩০ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করে বিজিবি। এই অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ ২ বিজিবি অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোহাম্মদ ফয়সাল হাসান খান।
তিনি আরো বলেন, ‘টেকনাফে নাফনদীর বাংলাদেশের জলসীমা ব্যবহার করে মাদক পাচারে জড়িত অপরাধীরা ফের সক্রিয় হচ্ছে এবং ঘৃর্ন্য মাদক অব্যাহত রাখার চেষ্টা করছে।
তিনি মনে করেন পাচারকারীদের সেই অপচেষ্টা প্রতিহত করার জন্য সীমান্ত প্রহরী বিজিবি সদস্যরা সদা প্রস্তুত রয়েছে।

কক্সবাজার ভিশন.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই পাতার আরও সংবাদ
error: Content is protected !!