টেকনাফে পাহাড় ধসে মৃত্যুর কোলে দুই শিশু, বসতবাড়ি ও মাছের ঘেরের ক্ষতি

টেকনাফে পাহাড় ধসে মৃত্যুর কোলে দুই শিশু, বসতবাড়ি ও মাছের ঘেরের ক্ষতি

নিজস্ব প্রতিবেদক, টেকনাফ
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

কক্সবাজারের সীমান্ত উপজেলা টেকনাফে ভারিবর্ষণে বসতবাড়ি ধসে গিয়ে দুই শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। বাড়ির নিচে চাপা পড়ে ওই দুই শিশু মারা যায়। ওই সময় অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন।

কক্সবাজার জেলাজুড়ে কয়েকদিনের টানা বর্ষণে বসতবাড়ি, পাহাড় ধস ও মাছের ঘেরের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বেশ কিছু এলাকা পানির নিচে তলিয়ে গেছে।

টেকনাফে বাড়ি ধসে নিহত দুই শিশু হলো মোহাম্মদ আলমের মেয়ে আলিফা (৫) ও রবিউল আলমের ছেলে মেহেদী হাসান (১০)।

ওই সময় আহতরা হলো জাফর আলমের মেয়ে শারমিন (৭), আব্দুস সালামের মেয়ে আলিমাসহ (১৭) তাদের মা-বাবা, ভাই-বোন ও চাচা-চাচীসহ অন্তত ৮ জন।

সুত্র মতে, মঙ্গলবার (১০ সেপ্টেম্বর) ভোর রাতে উপজেলার টেকনাফ পৌর এলাকার পুরান পল্লান পাড়ায় পৃথক পাহাড় ধসে শিশু আলিফা ও মেহেদী হাসানসহ অন্যরা বাড়ির নিচে চাপা পড়ে। এদের মধ্যে আলিফা ও মেহেদী হাসান মারা যায়। অন্যদের মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে।

টেকনাফে পাহাড় ধসে মৃত্যুর কোলে দুই শিশু, বসতবাড়ি ও মাছের ঘেরের ক্ষতি

জানা গেছে, আহতদের মধ্যে শারমিন ও আলিমাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশেষ টিম নিয়ে ক্ষতিগ্রস্থ এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানের পাহাড় ও টিলায় ঝুঁকিপূর্ণ বসবাসরতদের নিরাপদ আশ্রয়ে নেয়ার অভিযান শুরু করেন।

এছাড়াও এই টানা বর্ষণে উপজেলার হোয়াইক্যং, হ্নীলা, টেকনাফ পৌরসভা, সদর, সাবরাং ও বাহারছড়া ইউনিয়নের বিভিন্ন পাহাড়ি এলাকায় বিচ্ছিন্নভাবে শতাধিক বসতবাড়ি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ রবিউল হাসান জানান, অতিবৃষ্টিতে পাহাড় ধসে প্রাণহানির ঘটনা মাথায় রেখে সতর্কতামূলক প্রচারণা চালানো হয়েছিল। হঠাৎ চলতি ভারি বর্ষণে ঘর চাপা পড়ে ১০/১২ জন আহত হয়। আহতদের স্থানীয় সিপিপি ভলান্টিয়ার, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের লোকজন উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

তিনি জানান, আহতদের মধ্যে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শিশু মেহেদী হাসান ও আলিফা মারা যায়।

কক্সবাজার ভিশন.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই পাতার আরও সংবাদ
error: Content is protected !!