বাংলাদেশের পানিসীমায় দুই ভারতীয় জাহাজ

বাংলাদেশের পানিসীমায় দুই ভারতীয় জাহাজ

বাংলাদেশের পানিসীমায় অনুপ্রবেশ করেছে দুটি বিদেশি জাহাজ। গত ২০ আগস্ট মাছ ধরার জাহাজ দুটি বাংলাদেশে আসে। জাহাজ দুটি কী উদ্দেশ্যে এসেছে এবং এ বিষয়ে করণীয় নির্ধারণে রোববার সংশ্লিষ্টদের নিয়ে বৈঠকে বসছে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, মাছধরার জাহাজ দুটি ভারতের কন্টিনেন্টাল ফিশারিজ লিমিটেডের। জাহাজ দুটি এখন চট্টগ্রাম বন্দরে রয়েছে। খবর জাগোনিউজের।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব (ব্লু ইকোনমি) মো. তৌফিকুল আরিফ বলেন, ‘দুটি মাছ ধরার জাহাজ আমাদের জলসীমায় এসেছে। বলা হচ্ছে, মেরামতের জন্য আনা হয়েছে। আমরা দুটি জাহাজের বিষয়ে কী করব রোববার সেই বিষয়ে মিটিং ডাকা হয়েছে। সব কর্তৃপক্ষ মিলে যে সিদ্ধান্ত দেবে, সেটাই বাস্তবায়ন করা হবে।’

সভায় নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ, নৌ-অধিদফতর, কোস্টগার্ড, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় বা সংস্থার প্রতিনিধিরা থাকবেন বলে জানান যুগ্ম-সচিব।

তিনি আরও বলেন, ‘গত ২০ আগস্ট মাছধরার জাহাজ দুটি বাংলাদেশের জলসীমায় ঢুকে। এখন জাহাজ দুটি চট্টগ্রামে রয়েছে।’

তৌফিকুল আরিফ বলেন, ‘জাহাজ দুটি কী উদ্দেশ্যে আমাদের এখানে এসেছে, সেটা জানতে চাইব সভায়। কোন দেশের সেটাও আমরা নিশ্চিত হব। আমরা কাগজপত্র দেখে সবকিছু নিশ্চিত হব।’

অবৈধ অনুপ্রবেশ করা জাহাজের বিষয়ে জানতে চাইলে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন বলেন, আমরা শুনেছি ভারত থেকে দুটি জাহাজ এসেছে। তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানি না। নৌবাহিনী ও চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে বলতে পারবে। এ বিষয়ে কথা বলার এখতিয়ার আমার নেই।

চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সদস্য (হারবার ও মেরিন) ক্যাপ্টেন এম শফিউল বারী বলেন, এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু আমার জানা নেই। আগামীকাল সচিবালয়ের মিটিংয়ে গেলে হয়তো জানতে পারব।

কক্সবাজার ভিশন.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই পাতার আরও সংবাদ
error: Content is protected !!