কক্সবাজারে গানের শিক্ষকের ধর্ষণচেষ্টার শিকার চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রী, গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ

প্রধান প্রতিবেদক
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

কক্সবাজার শহরে পুলিশ সুপার কার্যালয় থেকে মাত্র ৫০ গজ দূরে কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের ৪র্থ তলায় গানের শিক্ষকের হাতে ধর্ষণ চেষ্টার শিকার হয়েছে বাহারছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক ছাত্রী। মাত্র ১০ বছর বয়সী ওই ছাত্রীর চিৎকারে লম্পট ওই শিক্ষককে ধরে স্থানীয় জনতা গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছেন।

লম্পট এই গানের শিক্ষকের নাম বোরহান উদ্দিন (৩৫)। তিনি শহরের বাহারছড়া এলাকার ইকবাল মাষ্টারের ছেলে। এই লম্পট বিবাহিত ও এক কন্যা সন্তানের জনক।

কক্সবাজারে গানের শিক্ষকের ধর্ষণচেষ্টার শিকার চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রী, গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ

গানের শিক্ষক বোরহান উদ্দিনের লাম্পট্য

বুধবার (৭ আগস্ট) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। পুলিশ ধর্ষণ চেষ্টার শিকার ওই ছাত্রীর জবানবন্দি নিয়ে গানের শিক্ষক বোরহান উদ্দিনের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

এই বোরহান উদ্দিনের বন্ধু ও পরিচিতজনরা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন, গানের শিক্ষকতার আড়ালে তিনি দীর্ঘদিন ধরে ছাত্রী ও মহিলা সাংস্কৃতিক কর্মীদের সাথে লাম্পট্য করে আসছেন। তিনি স্বভাবগত ভাবেই লাম্পট্যের সাথে জড়িত। এটি তার পরিচিতজনরা সবাই জানেন।

কক্সবাজার সদর থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রগুলো দাবি করছে, বোরহান উদ্দিন কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের ৪র্থ তলায় ছোট ছোট শিক্ষার্থীদের গানের ক্লাস নিতেন। ওই ক্লাসের ছাত্রী ছিল ধর্ষণ চেষ্টার শিকার ১০ বছর বয়সী ওই শিশু।

সূত্র মতে, অন্যদিনের মতো বুধবারও ওই ছাত্রী বোরহান উদ্দিনের গানের ক্লাসে গিয়েছিল। ক্লাস শেষে সবাইকে ছুটি দিলেও বাহারছড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণীর ওই ছাত্রীকে ছুটি না দিয়ে নিজের কাছে রেখে দেন। দীর্ঘ সময় পরও সেই ছাত্রী বাড়ি না ফেরায় তার বড় বোন ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের এই গানের ক্লাসে খোঁজ নিতে যান। খোঁজ নিতে গিয়ে তিনি দেখতে পান, গানের শিক্ষক বোরহান উদ্দিন ছোট্ট ওই শিশুটিকে নিজের কোলে বসিয়ে রেখেছেন। তার হাত রয়েছে শিশুটির গোপন অঙ্গে। এই দৃশ্য দেখে শিশুটির বড় বোন চিৎকার শুরু করলে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে লম্পট ওই শিক্ষককে ধরে ফেলেন।

কক্সবাজারে গানের শিক্ষকের ধর্ষণচেষ্টার শিকার চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রী, গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ

শিশু ধর্ষণ চেষ্টাকারি গানের শিক্ষক বোরহান উদ্দিনের লাম্পট্যের আরেকটি ছবি।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, লোকজন লম্পট শিক্ষককে ধরে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেন।

তবে ধর্ষণের চেষ্টাকারী গানের শিক্ষক বোরহান উদ্দিন ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের শিক্ষক কিনা তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

কক্সবাজার সদর মডেল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফরিদ উদ্দিন খন্দকার জানান, ধর্ষণ চেষ্টাকারী গানের শিক্ষককে কক্সবাজার থানা হাজতে নিয়ে আসা হয়েছে। ধর্ষণ চেষ্টার শিকার ছাত্রীর জবানবন্দিও নেয়া হয়েছে। এখন মামলার প্রস্তুতি চলছে।

এদিকে বাহারছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণীর ওই শিক্ষার্থীর বাড়ি বাহারছড়া বাজারের কাছাকাছি। ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর স্থানীয় লোকজন থানায় এসে ভিড় করেছেন। তারা ধর্ষণ চেষ্টাকারী লম্পট শিক্ষক বোরহান উদ্দিনের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন।

কক্সবাজার ভিশন.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই পাতার আরও সংবাদ
error: Content is protected !!