স্ত্রীর পরকিয়ায় বাধা দেয়ায় যুবক খুন

আ.লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে প্রাণ গেলো স্কুলছাত্রের

নিজস্ব প্রতিবেদক, মহেশখালী
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

নিজের স্ত্রীকে পরকিয়া প্রেমে বাধা দেয়ায় আবদুল মান্নান (৩০) নামে এক যুবক খুন হয়েছেন। স্ত্রী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজনের হাতে ওই যুবক নিহত হন।

বৃহস্পতিবার (পহেলা আগষ্ট) সন্ধ্যা ৭টার দিকে শাপলাপুর ইউনিয়নের ষাইটমারা এলাকায় তাঁর শ্বশুর বাড়িতে খুনের এই ঘটনা ঘটে।

নিহত মান্নান মহেশখালী উপজেলার শাপলাপুর ইউনিয়নের ষাইটমারা এলাকার মকবুল আহমদের ছেলে।

স্থানীয় সূত্র জানিয়েছেন, দক্ষিণ ষাইটমারা এলাকার সুমি আকতারকে ইসলামী শরীয়ত মোতাবেক বিয়ে করেন স্থানীয় আবদুল মান্নান। বিয়ের প্রথম দিকে স্বামী-স্ত্রী সুখে শান্তিতে সংসার করলেও গত কয়েক মাস ধরে স্ত্রী সুমি আকতার বাবুল নামের এক ছেলের সাথে পরকিয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়ে। তারই জের ধরে গত কয়েকদিন যাবৎ স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এই কারণে স্ত্রী সুমি আকতার তার বাবার বাড়িতে চলে যায়।

সূত্র মতে, কিছুদিন পর স্ত্রী সুমির ফোন পেয়ে স্বামী আবদুল মান্নান পহেলা আগস্ট বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাঁর শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে যান। সেখানে তাঁর স্ত্রী সুমি আকতার ও বাবুল নামে আরেক যুবক যৌনতায় লিপ্ত অবস্থায় হাতেনাতে ধরা পড়ে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মামুন জানান, স্ত্রীর পরকিয়া কাজে বাধা দেয়ার কারণে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হলে পরিকল্পিত ভাবে স্ত্রী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজনসহ মান্নানকে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। পরে তাঁকে স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় আহত অবস্থায় উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে মান্নানের মৃত্যু হয়।

মহেশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রভাষ চন্দ্র ধর জানান, ঘটনাটি খুবই দুঃখজনক। ঘটনার সাথে জড়িতদের সনাক্ত করে আইনের আওতায় আনা হবে।

কক্সবাজার ভিশন.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই পাতার আরও সংবাদ
error: Content is protected !!