সার্ভেয়ার সহিদুল হাসানের উপর হামলাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবি তুললো আইডিএসইবি

নিজস্ব প্রতিবেদক
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

রামু উপজেলা ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার সহিদুল হাসানের উপর হামলা ও হত্যা প্রচেষ্টায় জড়িত সন্ত্রাসীরা এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে রয়েছে। মামলা সত্বেও ঘুরাফেরা করছে প্রকাশ্যে। তাদের অবিলম্বে গ্রেপ্তারহ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছে ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা সার্ভে ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ।

সোমবার (২৯ জুলাই) বিকালে কক্সবাজার প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সংগঠনটির চেয়ারম্যান মো. হুমায়ুন কবির বলেন, ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা সার্ভে ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক ও জেলা নির্বাহী কমিটির সাধারণ সম্পাদক সহিদুল হাসান দীর্ঘদিন ধরে সুনামের সাথে রামু উপজেলা ভূমি অফিসে কর্মরত আছেন। তার নিষ্ঠা, সততা ও কাজকর্ম রামু উপজেলার মানুষের মন জয় করেছে। রামু ভূমি অফিসে সেবাপ্রার্থীদের অমায়িকভাবে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন তিনি।

আইডিএসইবি’র চেয়ারম্যান মো. হুমায়ুন কবির আরও বলেন, বিগত ১৮ জুলাই বিকাল সাড়ে ৮টায় রামু দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়নের পানেরছড়া ৫নং ওয়ার্ড পরিদর্শনকালে ১নং সরকারি খাস খতিয়ানভুক্ত পাহাড় থেকে মাটি ও গাছ কর্তনের দৃশ্য দেখতে পান। এসময় তিনি পাহাড় থেকে মাটি ও গাছ কর্তনের ছবি ধারণ করেন। পাহাড় কাটা বন্ধ করতে বললে একদল পাহাড়খেকো সন্ত্রাসী তার উপর হামলা চালায়।

হামলায় অংশ নেয় পাহাড় কাটায় নিয়োজিত মো. শহীদুল্লাহ, ফরিদুল আলম, নুরুল আজিমসহ ৬-৭ জন সন্ত্রাসী। তারা কিরিচ, রাম দা, লাঠি, শাবল ও কোদাল দিয়ে অসহায় সার্ভেয়ার সহিদুল হাসানকে পৈশাচিকভাবে এলোপাতাড়ি মারধর করে। এসময় সহিদুল হাসানের চিৎকারে আকাশ বাতাস ভারী হয়ে উঠে। প্রাণ বাঁচতে তিনি একটি বাড়িতে আশ্রয় নিলে সেখানেও সন্ত্রাসীরা হামলার উদ্দেশ্যে দরজা ভাঙ্গার চেষ্টা করে। ওই সময় জড়ো হয় আরও ২০/২৫ জন স্বশস্ত্র সন্ত্রাসী। পরে স্থানীয় প্রশাসন খবর পেয়ে সহিদুল হাসানকে উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় ১৯ জুলাই ১০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। যার মামলা নং-২৩/২৩২। এই মামলায় দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইউনুস ভূট্টোর তিন ভাইকে আসামি করা হয়েছে। যারা ঘটনায় সরাসরি জড়িত রয়েছেন।

আইডিএসইবি’র চেয়ারম্যান উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, সার্ভেয়ার সহিদুল হাসান সরকারি সম্পত্তি রক্ষায় অসীম সাহসিকতা প্রদর্শন করেন। যদি হামলাকারীদের আইনের আওতায় আনা না গেলে এমন ঘটনা বারবার ঘটবে। এতে আরও সাহস বাড়বে সন্ত্রাসীদের। পাশাপাশি কর্মক্ষেত্রসহ মাঠ পর্যায়ে কাজের আগ্রহ হারাবে অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ। তাই অবিলম্বে রামু ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার সহিদুল হাসানের উপর হামলাকারীদের অবিলম্বে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান আইডিএসইবি’র চেয়ারম্যান মো. হুমায়ুন কবির ও অন্য নেতারা।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের এলএ শাখায় কর্মরত সার্ভেয়ার ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা সার্ভে ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ এর যুগ্ন মহাসচিব মোঃ কবির আহমদ, চট্টগ্রাম বিভাগের সাধারণ সম্পাদক সার্ভেয়ার মোঃ ইব্রাহিম খলিল, এলএ শাখায় কর্মরত সার্ভেয়ার যথাক্রমে কামরুল হাসান, আবদুল বারেক, শাহীন আলম, মোঃ জহিরুল আলম, আতাউল হক, কাজী মাহমুদুল হাসান ও এমদাদুল হক।

কক্সবাজার ভিশন.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই পাতার আরও সংবাদ
error: Content is protected !!