হাত-পা বেঁধে ছাত্রীকে ধর্ষণকারি শিক্ষক ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

চট্টগ্রামে এক ছাত্রীকে হাত-পা বেঁধে ধর্ষণে অভিযুক্ত কোচিং সেন্টারের শিক্ষক মো. সাইফুল ইসলাম (৩০) র‍্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন।

সোমবার ভোরে জেলার লোহাগাড়া উপজেলার উত্তর আমিরাবাদ এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

নিহত সাইফুল ইসলাম উত্তর আমিরাবাদ এলাকার আব্দুস সোবহানের ছেলে। তিনি আমিরাবাদের ঘোনাপাড়া এলাকায় ‘সৃজনশীল’ নামে একটি কোচিং সেন্টার চালাতেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে র‌্যাব- ৭ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) এএসপি মো. মাশকুর রহমান জানান, ধর্ষণের মামলা হওয়ার পর সাইফুল ইসলাম কোচিং সেন্টার বন্ধ করে দিয়ে আত্মগোপনে চলে যান। পরে উত্তর আমিরাবাদ এলাকায় তার অবস্থানের খবর পেয়ে র‌্যাবের একটি দল ভোরে সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে সাইফুলের সহযোগীরা গুলি চালায়। পরে আত্মরক্ষার্থে র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। কিছুক্ষণ পর সাইফুলকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় সেখানে পড়ে থাকতে দেখা যায়। এ সময় র‌্যাব সদস্যরা তাকে লোহাগাড়া উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

বন্দুকযুদ্ধের পর র‌্যাব সদস্যরা ঘটনাস্থল থেকে দুটি আগ্নেয়াস্ত্র এবং ২৪ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করেছে বলেও জানান তিনি।

ইতিপূর্বে গত ১২ এপ্রিল ওই কোচিং সেন্টারের নবম শ্রেণীর এক ছাত্রীর বাসায় গিয়ে তাকে হাত-পা বেঁধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা হয় সাইফুল ইসলামের বিরুদ্ধে।