মাছ ধরতে গিয়ে ধর্ষিত হলো কিশোরী

খাগড়াছড়ির রামগড়ে প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে পৌরসভার দারোগাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। শুক্রবার রাতেই অভিযুক্ত বাবলুকে (৩১) আটক করেছে রামগড় থানা পুলিশ।

পুলিশ ও ধর্ষিতার পরিবার সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ধর্ষকের স্ত্রীসহ প্রতিবেশী অন্যদের সঙ্গে ফেনী নদীতে ভেসে ওঠা মাছ ধরতে যায় ওই ছাত্রী। মাছ ধরার এক পর্যায়ে অন্যরা একটু দূরে গেলে সুযোগ বুঝে বাবলু মেয়েটিকে জোর করে ঝোপের আড়ালে নিয়ে ধর্ষণ করে।

পরে মেয়েটি বাড়ি ফিরে তার মাকে জানালে প্রতিবেশীদের সহযোগিতায় অভিযুক্ত বাবলুকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

ধর্ষক বাবলু রামগড় পৌরসভার দারোগাপাড়ার শশুরবাড়িতে বসবাস করে। সে চট্টগ্রামের আতুরার ডিপো এলাকার কবির আহম্মদের ছেলে।

রামগড় থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারেক মো. আব্দুল হান্নান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আজ শনিবার মেয়েটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য খাগড়াছড়ি জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে। অভিযুক্তর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।