শ্রীলঙ্কায় হামলা : পদত্যাগ করলেন পুলিশের আইজি

গীর্জা এবং বিলাসবহুল হোটেলে প্রাণঘাতী জঙ্গি হামলা ঠেকাতে ব্যর্থতার দায়ে শ্রীলঙ্কা পুলিশের প্রধান ও দেশটির প্রতিরক্ষা সচিবকে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা। বুধবার প্রেসিডেন্ট দফতরের ঘনিষ্ঠ দুটি সূত্রের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ সংবাদসংস্থা রয়টার্স এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

ইস্টার সানডের সকালে দেশটির রাজধানী কলম্বোতে ভয়াবহ সিরিজ বোমা হামলায় অন্তত ৩৫৯ জনের প্রাণহানি ও আরো ৫০০ জন আহত হয়। এই হামলার তিনদিন পর মঙ্গলবার মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) এক বিবৃতিতে দায় স্বীকার করে।

হামলার ১০দিন আগে দেশটির গোয়েন্দা বাহিনীর কর্মকর্তারা সম্ভাব্য হামলার ব্যাপারে সতর্ক করে প্রধানমন্ত্রীর দফতরে চিঠি পাঠায়। কিন্তু সেই চিঠি প্রধানমন্ত্রী ও প্রেসিডেন্টের নজরেই আনেননি দেশটির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা।

ইস্টার সানডের ওই হামলার পর বুধবার দেশটির প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) পুজিথ জয়সুন্দরকে পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন।

এর আড়ে দেশটির একজন সংসদ সদস্য হামলার সম্ভাব্য গোয়েন্দা প্রতিবেদন পাওয়ার পরও উপযুক্ত ব্যবস্থা না নেয়ায় পুলিশের আইজিপি জয়সুন্দর ও প্রতিরক্ষা সেক্রেটারি হেমাসিরি ফার্নান্দোকে দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়ে প্রেসিডেন্টের কাছে চিঠি লেখেন।

লঙ্কান এমপি বিজয়দেশা রাজাপাকসে চিঠিতে বলেন, গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের কাছে থেকে ভয়াবহ নিরাপত্তা হুমকির তথ্য পাওয়ার পরও পুলিশের প্রধান ও ডিফেন্স সেক্রেটারি গুরুত্ব দেননি। তারা উভয়ই প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা ও প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহেকে সম্ভাব্য ওই হামলার ব্যাপারে অবগত করেননি।

এমনকি এ ধরনের হুমকি মোকাবেলায় যথাযথ ব্যবস্থা কিংবা আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশও দেননি পুলিশ প্রধান। দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে এই দুই কর্মকর্তাকে গ্রেফতারের দাবি জানান তিনি।