গরমে পুড়ছে মানুষ

জাহাঙ্গীর আলম
নিজস্ব প্রতিবেদক, ইনানী
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

গরমে নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে কক্সবাজার সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন প্রাইভেট হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক গুলোতে বাড়ছে রোগীদের চাপ। একই সাথে গরমে বাড়ছে বিভিন্ন ফলের দামও। গত কয়েকদিন ধরে প্রচন্ড ভ্যাপসা গরম ও তাপদাহে পুড়ছে সারাদেশ।

সূর্যের প্রচন্ড তাপ ও গরমে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে জনজীবন। অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে কর্মজীবী মানুষ।
সঙ্গে প্রাণীকূলও একটু পানি আর ছায়ার জন্য হাসফাঁস করছে। সকলেরই ত্রাহি অবস্থা। ঘরে বাইরে কোথাও স্বস্তি নেই।

এমনিতেই গরম, তার উপর বিদ্যুতের ঘন ঘন লোডশেডিং। বৃষ্টি এবং বাতাস না হওয়ায় বিশেষ করে গত ৬/৭ দিন ধরে গরমের তাপমাত্রা অনেকটা বেড়ে গেছে। প্রচন্ড গরমে হাফিয়ে উঠছে শিশুদের জীবন।

গরমের এমন তৃষ্ণা মিটাতে কক্সবাজার ও ইনানী বীচে বাড়ছে ডাবের চাহিদা এবং রসালো ফলের আমদানি।

কয়েকদিন ধরে দেখা গেছে, কক্সবাজারসহ সারাদেশে গরমের তাপমাত্রা ভাড়ায় অতি প্রয়োজনীয় কাজ ছাড়া ঘর থেকে তেমন একটা বাইরে বের হচ্ছেন না মানুষ। ফলে রাস্তাঘাটে মানুষ চলাচলও অনেকটা কমে গেছে।

গরমে পুড়ছে মানুষ

দিনের সূর্যের তাপ রাতে না থাকলেও সূর্যতাপের রেশ থাকছে মধ্যরাত পর্যন্ত। এই গরমে সবচেয়ে বেশি ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে শিশু ও বৃদ্ধদের। প্রচন্ড গরমের সাথে যোগ হয়েছে লোডশেডিং।

অধিক গরমের তাপমাত্রা বিভিন্ন হাসপাতাল এবং ক্লিনিকের রোগীদের অবর্ণনীয় দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। বাড়ছে ডায়রিয়া, কলেরা, জন্ডিসের মতো রোগে আক্রান্তের সংখ্যা।

গরমের কয়েকদিনে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে
বিভিন্ন ওয়ার্ডে রোগীর সংখ্যা বহুগুণ বেড়ে গেছে। হাসপাতালের বিভিন্ন ওয়ার্ড গুলো রোগীদের উপস্থিতিতে কানায় কানায় ভরে গেছে। জ্বর, সর্দি, কাশি, হাপানি, পাতলা পায়খানাসহ নানা রোগে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যাও বাড়ছে। গরমে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা।

কক্সবাজার ভিশন.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই পাতার আরও সংবাদ
error: Content is protected !!