চকরিয়ায় আদালতের নির্দেশে কবর থেকে তোলা হলো লাশ

চকরিয়ায় আদালতের নির্দেশে কবর থেকে তোলা হলো লাশ

কক্সবাজারের বৃহত্তর উপজেলা চকরিয়া পৌর এলাকার ৮ নাম্বার ওয়ার্ডের মাতামুহুরী ব্রীজের পূর্বপাশে হাজিয়ান দীঘিরপাড় এলাকায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় নিহত শহীদুল ইসলাম রায়হানের (২২) লাশ আদালতের নির্দেশে কবর থেকে তোলা হয়েছে।

বুধবার (৩ এপ্রিল) বেলা ১২টার দিকে ম্যাজিষ্ট্রেটের উপস্থিতিতে লাশটি তোলা হয়েছে।

শহীদুল ইসলাম রায়হান ওই এলাকার মৌলানা ইউনুছ আহমদের ছেলে।

সূত্র মতে, নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) খোন্দকার মোঃ ইখতিয়ার উদ্দিন আরাফাতের উপস্থিতিতে চকরিয়অ থানার উপ-পরিদর্শক সুকান্ত চৌধুরীর নেতৃত্বে পুলিশ লাশটি উত্তোলন করেন।

জানা গেছে, দোকানের ভেতর থেকে লাগানো ৩টি তালা খুলতে না পারায় দোকানের ভেতরে ঘুমানো অবস্থায় আগুনে দগ্ধ হয়ে মারা যান ব্যবসায়ী রায়হান। ওই সময় পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে লাশটি দাফন করা হলেও কিছুদিন পর স্থানীয় কয়েকজনের বিরুদ্ধে চকরিয়া সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা করেন নিহতের বাবা মৌলানা ইউনূছ আহমদ।

আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে তদন্তের নির্দেশ দেন এবং একজন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের উপস্থিতিতে কবর থেকে লাশ উত্তোলন করে ময়না তদন্তের আদেশ দেন।

সর্বশেষ আদালতের নির্দেশে বুধবার দুপুরে কবর থেকে নিহত রায়হানের লাশটি উত্তোলন করে কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।