পাসপোর্ট অফিসে ‘কথা বলে ধরা’ খেলেন কুতুপালং ক‌্যাম্পের চার রোহিঙ্গা নারী

পাসপোর্ট অফিসে ‘কথা বলে ধরা’ খেলেন কুতুপালং ক‌্যাম্পের চার রোহিঙ্গা নারী

কুড়িগ্রাম আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে এক দালালসহ ৪ রোহিঙ্গা নারীকে আটক করেছে সদর থানার পুলিশ।

বুধবার বিকেলে পাসপোর্ট অফিসে আবেদন করতে এসে সন্দেহ হলে সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আমিন আল পারভেজ তাদের আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।

তারা হলেন কক্সবাজারের কুতুপালং এলাকার ফাতেমা (২৬), মীম (২৫), আলেয়া খাতুন (২৬) ও নুরীকা খাতুন (২৫)।

কুড়িগ্রাম আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক আব্দুল মোত্তালেব সরকার জানান, জেলার নাগেশ্বরী উপজেলার সন্তোষপুর ইউনিয়নের বল্লভপুর গ্রামের আনিছুর রহমানের স্ত্রী আরিফা খাতুন আত্মীয় পরিচয়ে ৪ রোহিঙ্গা নারীকে মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য পাসপোর্ট করতে আসে। তাদের কথাবার্তায় সন্দেহ হওয়ায় আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আমিন আল পারভেজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, তাদের স্বীকারোক্তির প্রেক্ষিতে নাগেশ্বরীর একজনসহ ৪ রোহিঙ্গা নারীকে আটক করা হয়। আটকরা ওই উপজেলার সন্তোষপুর ইউনিয়নের বল্লভপুর গ্রামের ঠিকানা ব্যবহার করে পাসপোর্ট করতে আসে।