রামু উপজেলায় আবারও নির্বাচন চাইছেন পরাজিত ‘নৌকা’র প্রার্থী রিয়াজ

রামু উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি রিয়াজ উল আলম বলেছেন, রামুতে পরিকল্পিতভাবে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে পরাজিত করা হয়েছে। এ জন্য তিনি রামু উপজেলা পরিষদে পূণরায় নির্বাচনের দাবি জানাচ্ছি।

রিয়াজ উল আলম বলেন, ২৪ মার্চ অনুষ্ঠিত নির্বাচনে রামু উপজেলার কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের তিতারপাড়া, ফতেখাঁরকুল ইউনিয়নের বড়–য়াপাড়াসহ অনেক এলাকায় হিন্দু-বৌদ্ধ সম্প্রদায়কে ভয়ভীতি দেখিয়ে ভোট দিতে বাধা দেয়া হয়েছে। এ কারণে অনেক সংখ্যালঘু ভোটার ভোট দিতে যায়নি। আবার অনেক কেন্দ্রে প্রশাসনের অতি-উৎসাহী কতিপয় কর্মকর্তা ভোট কেন্দ্রে প্রভাব বিস্তার করে নৌকা প্রতীককে পরাজিত করতে ভুমিকা রেখেছে। এসব অনিয়মের ফলে রামুতে বিপুল জনপ্রিয়তা থাকা সত্ত্বেও তাকে (নৌকা প্রতীক) হারিয়ে দেয়া হয়েছে।

এসব অনিয়মের কারণে তিনি উপজেলার ১৫টি কেন্দ্রে পূনরায় নির্বাচন দেয়ার জোর দাবি জানিয়েছেন।

শনিবার (৩০ মার্চ) বিকালে রামু চৌমুহনী স্টেশনে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় রিয়াজ উল আলম এ দাবি জানান।

সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল।

আওয়ামী লীগ নেতা মাষ্টার ফরিদ আহমদের সভাপতিত্বে ও উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা সাদ্দাম হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে কক্সবাজার জেলা পরিষদ সদস্য নুরুল হক কোম্পানী, ফতেখাঁরকুল ইউপি চেয়ারম্যান ফরিদুল আলম, গর্জনিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম, দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান ইউনুচ ভূট্টো, কাউয়ারখোপ ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ, রাজারকুল ইউপি চেয়ারম্যান মুফিজুর রহমান, রশিদনগর ইউপি চেয়ারম্যান এমডি শাহ আলম, কবি এম সুলতান আহমদ মনিরী, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি এডভোকেট মোজাফ্ফর আহমদ হেলালী, সাধারণ সম্পাদক তপন মল্লিক, রামু উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক নীতিশ বড়–য়া, সহ সভাপতি ওসমান সরওয়ার মামুন জেলা যুবলীগ নেতা পলক বড়–য়া আপ্পু, জেলা তাঁতী লীগের সহ সভাপতি আনছারুল হক ভূট্টো, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ সম্পাদক, সাংসদ কমলের একান্ত সচিব আবু বক্কর ছিদ্দিক, গর্জনিয়া ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি হাফেজ আহমদ, কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি নজরুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা এম সেলিম, খুনিয়াপালং ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ বিদ্যুৎ মেম্বার, উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি শফিকুল আলম কাজল, উপজেলা তাঁতী লীগ সভাপতি নুরুল আলম জিকু, সাধারণ সম্পাদক মোস্তাক আহমদ, ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আজিজুল হক আজিজ, কাউয়ারখোপ ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি নুরুল ইসলাম নাহিদ, সাধারণ সম্পাদক মনজুর আলম সোহেল, ছাত্রলীগ নেতা মোহাম্মদ নোমান বক্তব্য রাখেন।

সমাবেশে জনপ্রতিনিধি, গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ছাড়াও রামু উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, শ্রমিক লীগ, সৈনিক লীগ, তাঁতী লীগ, বঙ্গবন্ধু ছাত্রপরিষদসহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।