মানুষ বাঁচাতে পাইপ চেপে ধরেছিল ‘মানবিকতার বীর’ সেই নাঈম

মানুষ বাঁচাতে পাইপ চেপে ধরেছিল ‘মানবিকতার বীর’ সেই নাঈম

রাজধানীর বনানীর এফআর টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার পর থেকে একটি ছেলের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রশংসা কুড়াচ্ছে। ছবিতে দেখা যায়, আগুন নেভানোর কাজে ব্যবহৃত একটি পাইপের ফাটা অংশ দুহাতে চেপে ধরে আছে এক শিশু। ছবিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার পর ওই ছেলে এখন বীর বনে গেছে।

ছেলেটির নাম নাঈম ইসলাম। রাজধানীর কড়াইল বস্তিতে বাবা-মায়ের সঙ্গে থাকে সে। পড়ে ব্র্যাকের আনন্দ স্কুলের পঞ্চম শ্রেণিতে। নাঈমের বাবা একজন ডাব বিক্রেতা, আর মা কর্মজীবী।

নাঈম জানায়, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার আগে মা নাজমা বেগম টিভি ছাড়তে বলেন তাকে। টিভিতে আগুনের ঘটনা দেখে দৌড়ে এফআর টাওয়ারের সামনের সড়কে উপস্থিত হয় সে। তারপর সেখানে পানির পাইপ ফাটা দেখে দুই হাত দিয়ে চেপে ধরে রাখে।

কেন পাইপ চেপে ধরেছিলে- জানতে চাইলে নাঈম বলে, মানুষ বাঁচাতে পাইপ চেপে ধরেছিলাম। পাইপ ফাটা থাকলে তো পানি সব অন্য দিকে পড়ে যায়।

মানুষ বাঁচাতে পাইপ চেপে ধরেছিল ‘মানবিকতার বীর’ সেই নাঈম

আগুন থেকে মানুষ বাঁচাতে ছুটে আসা ছোট্ট নাঈমের নিজেরই রয়েছে দুঃসহ স্মৃতি। কড়াইল বস্তিতে চোখের সামনে নিজেদের ঘর পুড়ে যেতে দেখেছে সে। এফআর টাওয়ারের আগুন দেখে হয়তো তার সেই স্মৃতি কথায় মনে পড়ে গিয়েছিল। তাইতো নিজের সবটুকু শক্তি দিয়ে চেপে ধরেছিল ফাটা পাইপটি।

বড় হয়ে সরকারি চাকরি করার স্বপ্ন নাঈমের। এখন সে ভালোভাবে পড়াশোনা করে নিজের স্বপ্ন পূরণ করতে চায়। ফাটা পাইপ চেপে ধরার মতো নিজের সংসারের হাল ধরতে চায় নাঈম।