মেয়ের বিয়ের আগেই পুড়ে গেলো ঘর, বিয়ের আনন্দ মাটি

কয়েকদিন পর মেয়ের বিয়ে। প্রবাসী বাবা রফিক আহমদ প্রাথমিক প্রস্ততি সারতে পাঠিয়েছেন ২ লাখ টাকা। ওই টাকায় বিয়ের আংশিক কাজও শেষ। আজকালের মধ্যে আরও টাকা পাঠানোর কথা ছিলো। সে টাকা পাঠালে বিয়ের পুরো প্রস্ততি নেয়া হতো। কিন্তু তার আগেই বিদেশ থেকে পাঠানো টাকাসহ অন্তত ১২ লাখ টাকার মালামাল ও বসতঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে পরিবার সদস্যদের বিয়ের আনন্দের মাঝে ছেদ পড়েছে।

সোমবার বেলা ১১টার দিকে ঘটনাটি ঘটেছে কক্সবাজারের বৃহত্তর উপজেলা চকরিয়ার উপকূলীয় ইউনিয়ন বদরখালীর ৯নং ওয়ার্ডের পূর্ব আমিরখালী পাড়ায়।

বদরখালী ইউপি চেয়ারম্যান মো.খাইরুল বশর আগুন লাগার ঘটনা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, সোমবার বেলা ১১টার দিকে পূর্ব আমিরখালী পাড়ার প্রবাসী রফিক আহমদের বাড়িতে চুলার আগুন থেকে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এতে প্রায় নগদ ২ লাখ টাকাসহ অন্তত ১২ লাখ টাকার মালামাল ও বসতঘর পুড়ে গেছে।

তিনি আরও বলেন, কয়েকদিন পরই রফিক আহমদের মেয়ের বিয়ে। রফিকের পাঠানো টাকাসহ ক্রয় করা বিয়ের আসবাবপত্র বাড়িতে রাখা হয়। এই অগ্নিকান্ডে তাদের মেয়ের বিয়ের জন্য রাখা সব জিনিসপত্রসহ পুরো বাড়ি আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

ঘটনাটি উপজেলা প্রশাসনকে জানানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

চকরিয়া ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের কর্মকর্তা জিএম মহিউদ্দিন বলেন, অগ্নিকান্ডের ব্যাপারে আমাদের কেউ অবহিত করেনি। তাই অগ্নিকান্ডের বিষয়টি জানা নেই।