ভোটকেন্দ্রে না যেতে মাইকিং করছিলেন তারা

 

উপজেলা নির্বাচনের দিন ভোটকেন্দ্রে ভোটারদের না যাওয়ার পরামর্শ দিয়ে মাইকিংয়ের দায়ে বগুড়ার শাজাহানপুরে সিএনজি অটোরিকশার চালকসহ ৩ যুবকের প্রত্যেককে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

শনিবার রাতে এই ঘটনা ঘটে। শাজাহানপুর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) কানিজ ফাতেমা লিজা ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

জরিমানাপ্রাপ্তরা হলেন- শাজাহানপুর উপজেলার জোড়া নাজমুল উলম মাদ্রাসার আলিম দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র হুজাইফা (২১), খরনা ইউনিয়নের দাড়িগাছা গ্রামের ফজলুর রহমানের ছেলে পলাশ (২৮) ও সিএনজি অটোরিকশা চালক বামনিয়া গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে রাসেল (২১)।

পুলিশ জানায়, হুজাইফা ও পলাশ নামে দুই যুবক শনিবার রাতে রাসেলের সিএনজি চালিত একটি অটোরিকশায় মাইক লাগিয়ে তাতে নির্বাচনের দিন ভোটারদের ভোটকেন্দ্রে না যাওয়ার অনুরোধ সম্বলিত রেকর্ড করা বক্তব্য প্রচার করছিলে। রাত সাড়ে ৮টার দিকে শাজাহানপুর উপজেলা পরিষদের সামনে বগুড়া-ঢাকা মহাসড়কে এ ধরনের মাইকিং স্থানীয় প্রশাসনের নজরে আসে। এরপর তাদের আটক করা হয়। তাদের কাছ থেকে প্রচারের সরঞ্জামাদি জব্দ করা হয়েছে। পরে রাত ৯টার দিকে তাদের ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হয়। এ সময় আদালত উপজেলা পরিষদ নির্বাচন আচরণ বিধির ১৮ নম্বর ধারায় ওই তিন যুবকের ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে ৭দিন করে কারাদণ্ডের নির্দেশ দেন।

শাজাহানপুর থানার ওসি জিয়া লতিফুল ইসলাম জানান, রায় ঘোষণার পর দণ্ডিতরা জরিমানা দিয়ে কারাবাস থেকে রেহায় পান।

তারা কোন রাজনৈতিক দলের সদস্য কিনা এমন প্রশ্নের উত্তরে ওসি বলেন, ‘না, এটা তারা স্বীকার করে না।’