জামাত-ই-ইসলামি ভারতে নিষিদ্ধ

কাশ্মীরের দল জামাত-ই-ইসলামি ভারতে নিষিদ্ধ

জঙ্গিদের মদদ দেওয়ার অভিযোগে কাশ্মীর ভিত্তিক রাজনৈতিক দল জামাত-ই-ইসলামি (জেইআই) কে পাঁচ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে ভারত।

বৃহস্পতিবার ওই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। এর আগে দুইবার দলটির উপর বিভিন্ন মেয়াদে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি কাশ্মীরের পুলওয়ামায় আত্মঘাতী বোমা হামলায় ৪০ সেনা নিহতের পর জঙ্গি দমনে সেখানে ব্যাপক ধরপাকড় শুরু হয়।
অভিযানে গত কয়েকদিনে প্রায় তিনশ জেইআই নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানান এক পুলিশ কর্মকর্তা।

১৯৪২ সালে যাত্রা শুরু করা জামাত-ই-ইসলামি দুই দশকের বেশি সময় ধরে ভারতের মূলধারার রাজনীতিতে সক্রিয় ছিল এবং নির্বাচনে অংশ নিয়েছিল।

১৯৮৯ সাল থেকে দলটি বিচ্ছিন্নতাবাদী রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়ে এবং ভারত থেকে কাশ্মীরের স্বাধীনতার আন্দোলন শুরু করে।

ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, জেইআই কর্মীরা ভারতের একটি অংশকে বিচ্ছিন্ন করতে চাইছে। যদি তারা তাদের ওই কর্মকা-ের রাশ টেনে না ধরে তবে তা দেশের জন্য সমস্যার কারণ হবে। তাই সরকার জেইআইকে ‘বেআইনী সংগঠন’ বলে ঘোষণা করেছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে জানতে জেইআই নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাদের পাওয়া যায়নি।