টেকনাফে চেয়ারম‌্যান ও ভাইস চেয়ারম‌্যান পদে মনোনয়ন ফরম তুললেন ১৮ প্রার্থী

টেকনাফে চেয়ারম‌্যান ও ভাইস চেয়ারম‌্যান পদে মনোনয়ন ফরম তুললেন ১৮ প্রার্থী

টেকনাফ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১৮ জন প্রার্থী মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। এতে চেয়ারম্যান পদে ৬ প্রার্থী, ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে ৮ জন ও (মহিলা) পদে ৬ প্রার্থী রয়েছেন।

সোমবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) অফিস চলাকালিন সময় পর্যন্ত উপজেলা সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে এসব ফরম সংগ্রহ করা হয়।

টেকনাফে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের নৌকার মনোনীত প্রার্থী অধ্যাপক মোঃ আলী, স্বতন্ত্র থেকে বর্তমান চেয়ারম্যান জাফর আহমদ, যুবলীগ সভাপতি নুরুল আলম ও প্রবাসী আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ ইসমাইল সিআইপি।

ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান মৌলানা রফিক উদ্দিন, মৌলানা ফেরদৌস আহমেদ, পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি জাবেদ ইকবাল, আওয়ামী লীগ নেতা নজরুল ইসলাম, প্রবাসী হাফেজ নুরুল হক, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি সরোয়ার আলম, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন বিজয়, পৌর শ্রমিক লীগ সাধারণ সম্পাদক ফরিদ আলম।

ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) পদে বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান তাহেরা আক্তার মিলি, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মিজবাহার ইউছুফ, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগ সভাপতি কোহিনুর আক্তার কাউন্সিলর, নাজমা আলম কাউন্সিলর, মনোয়ারা পারভীন, সাবেক ইউপি সদস্য সানজিদা বেগম।

২৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করে জমা দিতে পারবেন বলে এমন তথ্য নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ উপজেলা সহকারী নির্বাচন কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারী রিটার্নিং কর্মকর্তা কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) টেকনাফ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তপশীল ঘোষণা করেন। এতে মঙ্গলবার (২৬ ফেব্রুয়ারী) রিটার্নিং কর্মকর্তা বা সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট মনোনয়ন ফরম/অনলাইনে মনোনয়ন ফরম জমা। ২৮ ফেব্রুয়ারী বৃহস্পতিবার বাছাই। ৭ মার্চ প্রার্থিতা প্রত্যাহার। রবিবার (২৪ মার্চ) ভোট গ্রহণ অনুষ্টিত হবে।

সহকারী রিটার্নিং ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রবিউল হাসান বলেন, সোমবার পর্যন্ত টেকনাফে চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১৮ জন মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন। জেলা রির্টানিং কার্যালয় থেকেও ফরম সংগ্রহ করতে পারবেন। তবে মঙ্গলবার ফরম জমার শেষ দিন। তবে নির্বাচনে আচরনবিধি লঙ্গন করলে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না বলে জানিয়েছেন তিনি।