দুদকে এমপি কমলের বৈঠক, উচ্ছেদ আতংকে না ভোগার আহবান

‘দূর্যোগ মোকাবেলা’ ও ‘সম্প্রীতি রক্ষা’য় কক্সবাজারে এমপি কমলের ব্যতিক্রমী প্রচারণা



কক্সবাজার শহর ও ঝিলংজাবাসীকে উচ্ছেদ আতংকে না ভোগার আহবান জানিয়েছেন কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল। চলমান উচ্ছেদ আতংকের প্রেক্ষিতে বুধবার (৬ ফেব্রুয়ারী) এমপি কমল দুদকের ঢাকাস্থ কার্যালয়ে দুদকের ডিজি’র সাথে এক বৈঠক করেন। ওই বৈঠকে যাচাই-বাছাই না করে উচ্ছেদের কথা তোলে ধরেন তিনি।
কক্সবাজার শহরের ফাতের ঘোনা, জেল গেইট ও লারপাড়ায় যে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়েছে তাতে প্রায় ৮০ ভাগ নিরপরাধ মানুষ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে।
তিনি বলেছেন, যারা পাহাড় কেটেছে তাদের পক্ষে আমার সমর্থন নাই। যারা ঝুকিপুর্ন স্থানে বসবাস করছে তাদেরকে নোটিশ সাপেক্ষে উচ্ছেদ করা যেতে পারে। কিন্তু ওই এলাকার অধিকাংশ মানুষ ৪০/৫০ বছর ধরে বসবাস করে আসছে। তাদেরকে উচ্ছেদ না করে জমিগুলো তাদের নামে বন্দোবস্ত দেয়ার দাবী জানিয়েছেন এমপি কমল।
তিনি বলেন, জমিগুলো বসবাসরত মানুষের নামেই বন্দোবস্ত করা হবে। কোন বিত্তবানকে হোটেল-মোটেল করার জন্য বরাদ্ধ দেয়া হবেনা।
বৈঠক শেষে দুদক কার্যালয়ের সামনে এক প্রেস বিফিং এ সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি বলেছেন, বৈঠক ফলপ্রসু হয়েছে। তিনি কক্সবাজার শহর ও ঝিলংজাবাসীকে উচ্ছেদ আতংকে না ভোগার আহবান জানিয়ে বলেন, ‘বিষয়টি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকেও জানানো হয়েছে। এ ব্যাপারে তিনি সদয় আছেন।
কক্সবাজারবাসীকে এমপি কমল বলেন, আমার ভুমিকা আজীবন গরীব, অসহায় মানুষের পক্ষে থাকবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষনা- পুনর্বাসন ছাড়া কোন বসতি উচ্ছেদ হবেনা। তিনি কক্সবাজারবাসীকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হাতকে শক্তিশালী করতে পাশে থাকার আহবান জানান।