চকরিয়া-পেকুয়ায় মানুষের ভালোবাসায় সিক্ত হাসিনা আহমদ

চকরিয়া-পেকুয়ায় মানুষের ভালোবাসায় সিক্ত হাসিনা আহমদ

চকরিয়া-পেকুয়ায় মানুষের ভালোবাসায় সিক্ত হাসিনা আহমদ

আগামি ৩০ ডিসেম্বরের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কক্সবাজার-০১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনে বিএনপি তথা ঐক্যফ্রন্টের মনোনয়ন পেয়েছেন এই আসনের সাবেক সাংসদ, ভারতের শিলংয়ে অবস্থানকারি সালাহউদ্দিন আহমদের স্ত্রী এডভোকেট হাসিনা আহমদ। তিনিও এই আসনের সাবেক সংসদ সদস্য।

‘ধানের শীষে’র মনোনয়ন নিয়ে হাসিনা আহমদ মঙ্গলবার (২৭ নভেম্বর) বেলা ২টার দিকে কক্সবাজার জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেনের কাছে মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন।

ওইদিন জেলার দলীয় নেতা কর্মীদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন চকরিয়া-পেকুয়া আসনের সাবেক সাংসদ এড. হাসিনা আহমদ। পরে হাসিনা আহমদ তার নির্বাচনী এলাকা চকরিয়ায় পৌছলে নেতা-কর্মীরা রাস্তার দুইপাশে দাঁড়িয়ে এক নজরে দেখার জন্য জড়ো হন। তিনি গাড়িতে দাঁড়িয়ে রাস্তার দু্ইপাশে অবস্থানকারি নেতাকর্মীদের হাতে নেড়ে অভিবাদন জানান।

এদিকে সাবেক সালাহউদ্দিন আহমদের নিজের এলাকা পেকুয়ায় ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে বিএনপির মনোয়নপ্রাপ্ত হাসিনা আহমদের আসার খবর দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। এই খবর পেয়ে মুহুর্তেই বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মী, দলের প্রিয় নেতা সালাহউদ্দিন আহমদ ভক্ত অাবালবৃদ্ধ বণিতার মাঝে দেখা দেয় আনন্দ উল্লাস। এক নজর সালাহউদ্দিন আহমদের স্ত্রী হাসিনা আহমদকে দেখতে স্থানীয় নেতা-কর্মী, ব্যবসায়ী ও সুশীল সমাজের ব্যক্তিবর্গ জড়ো হন রাস্তার দু্ইপাশে।

সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় সাবেক সাংসদ হাসিনা আহমদ পেকুয়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের চৌমুহনী কলেজ গেইট এলাকায় পৌছালে উপস্থিত নেতাকর্মীরা তাকে সংবর্ধনা দেন। দীর্ঘদিন পর পেকুয়ায় বিএনপি ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনসহ সাধারণ জনতার ভালবাসায় সিক্ত হন হাসিনা আহমদ।

চকরিয়া-পেকুয়ায় মানুষের ভালোবাসায় সিক্ত হাসিনা আহমদ

প্রসঙ্গত, এই আসনে ১৯৯৬ সাল থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত দুই-দুইবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন বিএনপির বর্তমান স্থায়ী কমিটির সদস্য, জাতীয় নির্বাহী কমিটির সাবেক যুগ্ম-মহাসচিব ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী সালাহউদ্দিন আহমদ। পরবর্তীতে আইনগত জটিলতার কারণে তিনি নির্বাচন করতে না পারায় বিএনপির মনোনয়ন পান তার সহধর্মিনী এড্. হাসিনা আহমদ। ২০০৮ সালের ২৯ ডিসেম্বর অনুষ্টিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি অংশ গ্রহণ করে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হন। এরই ধারাবাহিকতায় কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনটি বিএনপির ‘রিজার্ভ আসন’ হিসেবে রাজনৈতিক মহলে পরিচিতি পায়। এখনও চকরিয়া-পেকুয়ায় বিএনপির অবস্থান খুবই শক্তিশালী।

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি তথা চারদলীয় জোট অংশ না নেয়ায় এই আসনটিতে বিনাপ্রতিদ্বন্ধিতায় সংসদ সদস্য নিবাচিত হন জাতীয় পার্টি সমর্থিত প্রার্থী মোহাম্মদ ইলিয়াছ।

এদিকে বিএনপির দূর্গ হিসেবে পরিচিত এই আসনটিতে আগামী একাদশ সংসদ নির্বাচনে লড়বেন এড. হাসিনা আহমদ। এবারও বিএনপির নেতা-কর্মীরা আসনটি ধরে রাখতে দীর্ঘদিন ধরে সংগঠন গোছানোর কাজ করছেন।

স্থানীয় বিএনপি নেতারা মনে করেন, তাদের নেতা সালাহউদ্দিন আহমদের নেতৃত্বে কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনটি অতীতে যেমন ধরে রেখেছেন। আগামীতেও ধরে রাখতে মরনপণ প্রস্তুতি নিয়েছেন তারা।

দলটির সকল পর্যায়ের নেতা-কর্মীরা জানান, এবারও বিএনপির মনোনয়ন পাওয়া সাবেক সংসদ সদস্য এড. হাসিনা আহমদকে দ্বিতীয়বারের মতো বিজয়ী করতে যা যা প্রয়োজন সব কিছুই করবেন তারা।