দ্বিতীয় টেস্টেও তামিমের না থাকা প্রায় নিশ্চিত

দুই দিনের নেট সেশন আশার সঞ্চার করেছিল অনেকটাই। কিন্তু স্ক্যান রিপোর্ট সেই আশার প্রদীপ নিভিয়েই দিল এক রকম। চোটের নাটকীয় উন্নতি না হলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টেও তামিম ইকবালকে পাচ্ছে না দল।

মিরপুর টেস্টে ফেরার সম্ভাব্যতা দেখতেই রোববার সন্ধ্যায় একটি স্ক্যান করানো হয় তামিমের। সেটির রিপোর্ট জানিয়েছে, বাঁহাতি ওপেনারকে নিয়ে শঙ্কা কাটেনি এখনও। আনুষ্ঠানিকভাবে এখনও রিপোর্টের তথ্য প্রকাশ করেনি বিসিবি। তবে বোর্ডের নানা সূত্র থেকে জানা গেছে, চোটের জায়গায় এখনও খানিকটা তরল জমা হয়ে আছে। ভেতরে ফুলেও আছে খানিকটা।

টেস্ট শুরু শুক্রবার। তার আগে যা অবস্থা, সেটি নিয়েও হয়তো খেলা সম্ভব। তবে একই জায়গায় আবার চোট পেলে ওয়ানডে সিরিজ তো বটেই, ছিটকে যেতে হতে পারে লম্বা সময়ের জন্য। সেই ঝুঁকি দল নেবে না বলেই সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত প্রায়।

এই সিরিজে তামিম খেলতে পারছেন না সাম্প্রতিক সময়ের দ্বিতীয় দফা চোটে। গত সেপ্টেম্বরে এশিয়া কাপের প্রথম ম্যাচে আঙুলে চোট পেয়ে ছিটকে গিয়েছিলেন। সেই চোট কাটিয়ে ফেরার লড়াইয়ে এই মাসেই শুরু করেছিলেন নেট সেশন। কিন্তু সেখানেই বিপত্তি বাধে আবার। এবার হানা দেয় সাইড স্ট্রেইন। ছিটকে যান শরীরের ডান পাশের চোটে।

নতুন এই চোট কাটিয়ে ফেরার প্রক্রিয়াও শুরু হয়েছিল। ব্যাটিংয়ে ফিরেছিলেন, শনি ও রোববার মিরপুরে ব্যাট করেছেন স্পিনে। রোববার নেট ব্যাটিংয়ে স্পিনে চার-ছক্কার ঝড়ও তুলেছিলেন। সবকিছুতেই ছিল ইতিবাচক ইঙ্গিত। কিন্তু স্ক্যান রিপোর্টই বদলে দিল ভাবনা।

দলের সেরা ওপেনারের অনুপস্থিতিতে উদ্বোধনী জুটি ধুঁকছে প্রতি ম্যাচেই। চট্টগ্রাম টেস্ট শেষে অধিনায়ক সাকিব আল হাসান অসহায় কণ্ঠে বলেছিলেন, দল এখন তামিমের ফেরার অপেক্ষায়। সেই অপেক্ষা দীর্ঘায়িত হয়েই চলছে।