কক্সবাজার-০৪ (উখিয়া-টেকনাফ)

বদিকে না পেয়ে হতাশ খেটে-খাওয়া মানুষ, আস্থার ঠিকানা এখন শাহজাহান চৌধুরী

বদিকে না পেয়ে হতাশ খেটে-খাওয়া মানুষ, আস্থার ঠিকানা এখন শাহজাহান চৌধুরী

বদিকে না পেয়ে হতাশ খেটে-খাওয়া মানুষ, আস্থার ঠিকানা এখন শাহজাহান চৌধুরী

উখিয়া-টেকনাফ উপজেলা নিয়ে গঠিত কক্সবাজার-৪ সংসদীয় আসন। এই আসনে আসন্ন সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বর্তমান সাংসদ আব্দুর রহমান বদির স্ত্রীর নাম ঘোষণা করায় সাধারণ জনমনে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। আওয়ামী লীগের ডজনখানেক মনোনয়ন প্রত্যাশী থাকলেও দলের জন্য নিবেদিত নেতাদের বাদ দিয়ে শুধুমাত্র ‘এমপি বদির স্ত্রী’ এই যোগ্যতায় মনোনয়ন ঘোষণায় ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগে চলছে গৃহদাহ।

সাধারণ খেটে-খাওয়া মানুষের ঘরে চাউলের বস্তা পাঠিয়ে দিয়ে গরীবের খবরাখবর নিয়েছেন এমপি আব্দুর রহমান বদি। তাই তিনি এত জনপ্রিয়। কিন্তু তাকে বাদ দেয়ায় তার অনেক ভক্তও হতাশ হয়েছেন।

রিক্সাচালক ওসমান বলেন, আমাদের কাপড় ও চাউলের বস্তা দিয়ে এমপি বদি খোঁজখবর নিয়েছেন। আর কোনো এমপি এই পর্যন্ত আমাদের এমনি করে খোঁজখবর নেয়নি। এবারও এমপি বদি মনোনয়ন পেলে তাকেই ভোট দিতাম। তিনি মনোনয়ন না পাওয়ার কথা শুনে আমরা বিষণ নারাজ হয়েছি। এমন কী তাকে ছাড়া অন্য কাউকে মনোনয়ন দিলে নৌকায় ভোট দেব না বলেও শপথ করেছি। তাই এবার আর নৌকায় ভোট দেয়া হবে না আমাদের।

এদিকে বিএনপির একক প্রার্থী শাহজাহান চৌধুরী গণসংযোগ শুরু করে দিয়েছেন। তার মতো ক্লিন-ইমেজের নেতাকে পেয়ে এখানকার ভোটাররা আশা করছেন এবার বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিএনপি তথা শাহজাহান চৌধুরী জয়ী হবেন।

কারণ হিসেবে একাধিক ভোটার বলেন, শাহজাহান চৌধুরী পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবিদ, ক্লিন-ইমেজ ও যোগ্যতার মাপকাঠির বিবেচনায় তার মতো ব্যক্তিকেই এবার মানুষ ভোট দেবেন।

নারী ভোটার খালেদা আক্তার ও ফারজানা আক্তার বলেন, আমরা নারীরা এখনো পুরুষের সাথে পাল্লা দিয়ে সংসদ নির্বাচনে জয়ী হওয়ার মতো অনুকুল পরিবেশ উখিয়া-টেকনাফে সৃষ্টি করতে পারিনি। এবারই প্রথম এই ভাগ্যবান আসনে নারী প্রার্থী সরাসরি নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। এটা আমাদের নারী সমাজের অহংকার।

তারা বলেন, জয়-পরাজয় আল্লাহর হাতে। বর্তমান সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড ভোটারদের কাছে তুলে ধরতে হবে। তাছাড়া এমপি বদি সাধারণ ভোটারদের কাছে আস্থা অর্জনে এগিয়ে আছেন।

বিপরীতে কক্সবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি, সাবেক সাংসদ ও হুইপ শাহজাহান চৌধুরী উখিয়া-টেকনাফ এলাকার পরীক্ষিত জনপ্রিয় নেতা।

গণমুখে প্রচলিত আছে, কক্সবাজার-৪ আসনে যে দল জয় লাভ করে, সেই দল সরকার গঠন করে। ভোটাররা চাচ্ছেন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এমন একজন প্রার্থীকে বেছে নিতে যিনি এই এলাকার উন্নয়ন ও জনগণের প্রত্যাশা পূরণে সফল হবেন।

আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীদের মতে, উখিয়া-টেকনাফের উন্নয়নে বর্তমান সরকার যা করেছে, তা বিগত ৫০ বছরেও হয়নি। তাই জনগণ আবার আওয়ামী লীগকেই ভোট দেবে।

অন্যদিকে বিএনপি নেতাদের দাবি, এই আসনে কোনো উন্নয়নই হয়নি। তারা চান ভোটাররা যেন শান্তিপূর্ণ পরিবেশে তাদের ভোটাধিকার প্রযোগ করতে পারেন।