পথশিশুদের খৎনা ক্যাম্প শুরু করলো ‘নতুন জীবন’

পথশিশুদের খৎনা ক্যাম্প শুরু করলো ‘নতুন জীবন’

পথশিশুদের খৎনা ক্যাম্প শুরু করলো ‘নতুন জীবন’
কক্সবাজার শহরের ছিন্নমূল পথশিশুদের খৎনা ক্যাম্পের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয়েছে। এই ক্যাম্পে পর্যায়ক্রমে ৫০ জন পথশিশুকে খৎনা করানো হচ্ছে।

শনিবার দুপুরে কক্সবাজার প্রেসক্লাবে আয়োজিত অনুষ্ঠানে খৎনা ক্যাম্পের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন।

বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) ও কক্সবাজার প্রেসক্লাবের সহযোগিতায় এই খৎনা ক্যাম্প বাস্তবায়ন করছে জয়বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্ত পথশিশুদের কল্যাণমূলক সংগঠন ‘নতুন জীবন’। প্রথম দিন ৫ জন শিশুকে খৎনা করানো হয়।

কক্সবাজার প্রেসক্লাবের সভাপতি মাহবুবর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের চৌধুরী, বিএমএ’র সাধারণ সম্পাদক ডা. মাহবুবুর রহমান, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক প্রিয়তোষ পাল পিন্টু, কালের কণ্ঠের কক্সবাজার অফিস প্রধান তোফায়েল আহমেদ, প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি মমতাজ উদ্দিন বাহারী, বিএফইউজে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সদস্য আয়াছুর রহমান, প্রথম আলোর কক্সবাজার অফিস প্রধান আব্দুল কুদ্দুস রানা, সাংবাদিক ইউনিয়ন কক্সবাজারের সাধারণ সম্পাদক হাসানুর রশিদ, শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের উপ-পরিচালক জেসমিন আক্তার, মাদক নিরাময় কেন্দ্র ‘নোঙরের’ নির্বাহী পরিচালক দিদারুল আলম রাশেদ।

এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন নতুন জীবন’র সভাপতি ওমর ফারুক হিরু। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন নতুন জীবনের অর্থ সম্পাদক তৌফিকুল ইসলাম লিপু।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন বলেন, পথশিশুদের মানবেতর জীবন থেকে একটি সুন্দর জীবনে নিয়ে আসার জন্য যারা উদ্যোগ নিয়েছে, তাদের পাশে সবাইকে দাঁড়াতে হবে। যেন সুবিধাবঞ্চিত এসব শিশুরাও আমাদের মতো স্বাভাবিক জীবনযাপন করতে পারে।

তিনি বলেন, মেয়ে পথশিশুদের (যারা বিয়ের উপযুক্ত) বিয়ে এবং ছেলে পথশিশুদের কর্মক্ষম করার জন্য জেলা প্রশাসন সর্বাত্মক সহযোগিতা দেবে। আর তাদের প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার সাথে নিবিড়ভাবে সম্পৃক্ত করারও ব্যবস্থা করা হবে।

জেলা প্রশাসক জানান, শহরের মধ্যেই সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য একটি স্কুল নির্মিত হচ্ছে। সেখানে কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত করে তাদের সমাজের মূল ধারায় ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করা হবে।

স্বাগত বক্তব্যে নতুন জীবন সংগঠনের সভাপতি ওমর ফারুক হিরু জানান, পথশিশুদের একটি সুন্দর জীবন দেয়ার জন্য কাজ করছে ‘নতুন জীবন’। আমাদের সাধ্যের মধ্যে তাদেরকে (পথশিশু) সপ্তাহে দুইদিন পড়াশোনা করানো হয়। এছাড়াও তাদের চিকিৎসা, নিরাপত্তা, কাপড় বিতরণ এবং মাঝেমধ্যে খাবার সরবরাহ করা হয়। কিন্তু তাদের জন্য আরও অনেক কিছু করার আছে। এখনো তাদের জন্য নাইট শেল্টার করার সামর্থ্য আমাদের হয়নি। যেটা খুবই প্রয়োজন।

নতুন জীবনের সভাপতির বক্তব্যের উত্তরে জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন বলেন, পথশিশুদের রাস্তা বা ফুটপাতে থাকতে হবে না। তাদের জন্য জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে শিগগিরই একটি জায়গা বরাদ্দ দেওয়া হবে। সেখানে নাইট শেল্টার নির্মাণ করে দেওয়া হবে।

এসময় অতিথিদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক ফরহাদ ইকবাল, নেছার আহম্মদ, নুপা আলম, দীপক শর্মা দীপু, আহসান সুমন, সুজা উদ্দিন রুবেল প্রমুখ।

পথশিশুদের খৎনা কার্যক্রম ও প্রেসক্লাব পরিষ্কারের অনুষ্ঠান সফলভাবে সম্পন্ন করতে নিরলসভাবে কাজ করেন নতুন জীবন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক বাসুদেব শর্মা সুমন, সহ-সভাপতি মিনহাজ চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক রাশেদ রিপন, দপ্তর ও প্রচার সম্পাদক আজিম নিহাদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাইফুল আলম বাদশা, নির্বাহী সদস্য আদনান শরিফ, মরিয়ম আলম নুপুর, সদস্য আশরাফুল হাসান রিসাদ, তৌহিদুল ইসলাম তোহা, জাহাঙ্গীর আলম জ্যাক, মোহাম্মদ ফরিদ, হিমুচন্দ্র শীল, আল মামুন খাঁন, মারুফ ইবনে হোসেন, জহিরুল হক চৌধুরী শাহিন, আদনানুল ইসলাম ও পথশিশুদের শিক্ষক উর্মি সোলতানা।

খৎনা ক্যাম্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে নতুন জীবনের উদ্যোগে প্রেসক্লাব প্রাঙনে পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালানো হয়। সেটিও উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন।

বিএমএ’র সহযোগিতায় ধারাবাহিক খৎনা প্রক্রিয়া চলতে থাকবে ডক্টরস্ চেম্বারে।