ছয় আসনের সব কেন্দ্রে ইভিএম: ইসি সচিব

দেশের ৩শটি সংসদীয় আসনের মধ্যে ৬টি আসনের সব কেন্দ্রে ইভিএম (ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন) ব্যবহার করা হবে বলে নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে। সিটি করপোরেশন ও শহর এলাকার আসনগুলো থেকে দ্বৈবচয়নের মাধ্যমে এই ছয়টি আসন নির্ধারণ করা হবে। শনিবার (২৪ নভেম্বর) প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কমিশন সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বৈঠক শেষে ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ সাংবাদিকদের এই সিদ্ধান্তের কথা জানান।

ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, ‘কোথায় কোথায় ইভিএম ব্যবহার করা হবে, তা নিয়ে রাজনৈতিক দল ও ভোটারদের মধ্যে ব্যাপক আগ্রহ রয়েছে। আজ ৪০তম কমিশন সভায় দেশের ৩শ আসনের মধ্যে সর্বসম্মতিক্রমে ৬টি আসনের সব কেন্দ্রে ইভিএম ব্যবহারের সিদ্ধান্ত হয়।’

সিটি করপোরেশন ও আরবান এলাকার আসন থেকে এগুলো বাছাই করা হবে উল্লেখ করে ইসি সচিব বলেন, ‘কমিশনার রফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে এই বিষয়ে একটি কমিটি কাজ করছে। আগামী ২৮ নভেম্বর গণমাধ্যমের সামনে দ্বৈবচয়নের মাধ্যমে এই আসনগুলো নির্ধারণ করা হবে।’

কতগুলো কেন্দ্রে ইভিএম ব্যবহার করা হবে এমন প্রশ্নের জবাবে ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, ‘কোন কোন আসনে হবে, এটি নির্ধারণের আগে কতগুলো কেন্দ্রে ইভিএম ব্যবহার করা হবে তা বলা সম্ভব নয়। তবে, শহরাঞ্চলের আসন হিসেবে প্রতি আসনে গড়ে দেড়শটি কেন্দ্র হিসেব করলে ৯শ কেন্দ্রের মতো হতে পারে ।’

কিসের ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে, জানতে চাইলে ইসি সচিব বলেন, ‘কেন্দ্রের সার্বিক অবস্থা, প্রশিক্ষণরত কর্মকর্তাদের সক্ষমতা ও সার্বিক বিষয়ে বিবেচনা করে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে।’

অপর এক প্রশ্নের জবাবে ইসি সচিব বলেন, ‘সাধারণ নির্বাচনি কর্মকর্তা ও সেনাবাহিনী সংমিশ্রনে ইভিএম পরিচালনা করা হবে। এজন্য আগামীকাল রবিবার (২৫ নভেম্বর) সেনাবাহিনীর সিগন্যাল কোরের কর্মকর্তাদের নিয়ে তিন দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ দেওয়া শুরু হবে। প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত এই কর্মকর্তারা যার যার বিভাগে গিয়ে আরও সদস্যদের প্রশিক্ষণ দেবে। ভোটকেন্দ্রে সেনাবহিনীর সিগন্যাল কোরের এই সদস্যরা টেকনিক্যাল সাপোর্টও দেবে।’

বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের আপত্তির পরও ইভিএম ব্যবহার হওয়ার কারণ জানতে চাইলে ইসি সচিব বলেন, ‘স্থানীয় সরকার নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার হয়েছে। ডিজিটাল ব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। মানুষ শিক্ষিত হচ্ছে। এসব বিবেচনা করে কমিশন এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আমরা এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের পথে এগিয়ে যাচ্ছে।’