চকরিয়ায় পিকনিকের বাস উল্টে খাদে, গার্মেন্ট কর্মী নিহত ও আহত অর্ধশত

চকরিয়ায় বাস-মাইক্রোবাস মুখোমুখি, নিহত ৪ ও আহত ১১

চকরিয়ায় বাস-মাইক্রোবাস মুখোমুখি, নিহত ৪ ও আহত ১১

কক্সবাজারের বৃহত্তর উপজেলা চকরিয়ায় পিকনিকের বাস উল্টে সাইফুল ইসলাম (২৫) নামের এক গামেন্ট কর্মী নিহত হয়েছেন। ওই সময় নারী-পুরুষ ও শিশুসহ অর্ধশত যাত্রী আহত হয়েছেন। আহতদের চকরিয়া উপজেলার বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

বুধবার ভোর ৪টার দিকে কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চকরিয়া সরকারি কলেজ গেইটের নলবিলা এলাকায় এই দূর্ঘটনা ঘটে।

নিহত সাইফুল ইসলাম পটুয়াখালী জেলার বাউফল উপজেলার বাসিন্দা ও নারায়নগঞ্জের একটি গার্মেন্ট কারখানার কর্মী। তবে আহতদের নাম-পরিচয় পাওয়া যায়নি।

চিরিংগা হাইওয়ে পুলিশের পরিদর্শক মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, ঢাকার নারায়নগঞ্জের আদমজী থেকে উর্মি গ্রুপের কিছু গামেন্ট কর্মী তাদের পরিবার নিয়ে পিকনিক করতে মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিয়েছিল। তাদের বহনকারী বাসটি চকরিয়া সরকারি কলেজ গেইট এলাকার নলবিলা এলাকায় পৌছলে চালক বাসটির নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন এবং পাশের খাদে পড়ে উল্টে যায়।

এসময় ওই বাসের যাত্রী সাইফুল ইসলাম নিজেকে বাঁচাতে বাস থেকে লাফ দিলে বাসের নিচে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান।

তিনি জানান, দূর্ঘটনাকবলিত বাসটি জব্দ করা হয়েছে। এসময় আহতদের উদ্ধার করে চকরিয়া সরকারি হাসপাতালসহ স্থানীয় বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। তাদের মধ্যে গুরুতর আহতদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

নিহত সাইফুলের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান তিনি।