দোয়া নিলেন এমপি কমল

‘আকিদা’ ঠিক করতে বললেন আল্লামা শফী

‘আকিদা’ ঠিক করতে বললেন আল্লামা শফী

‘আকিদা’ ঠিক করতে বললেন আল্লামা শফী

‘আমল ছাড়া মুক্তি নাই। জাহেরী (প্রকাশ্য) আমলের চেয়ে বাতেনী (চুপিসারে) আমলের দাম অনেক বেশী।’ হেফাজতে ইসলামের আমীর ও আল হাইয়াতুল উলয়া লিল জামেয়াতুল কওমীয়া বাংলাদেশের চেয়ারম্যান আল্লামা শাহ আহমদ শফী এমনটাই বলছেন। তিনি সকলের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আকিদা ঠিক করেন, সব ঠিক হয়ে যাবে। আমল কবুল হওযার পূর্বশর্তই হলো সঠিক আকিদা।’

তিনি শুক্রবার (১৬ নভেম্বর) সকালে কক্সবাজার শহরের লাইট হাউজ দারুল উলুম মাদরাসায় আয়োজিত ‘এছলাহী জলসা’য় প্রধান অতিথি হিসেবে অালোচনা করেন।

আল্লামা শফী বলেন, ‘আম্বিয়া, হক্কানী আলেম ওলামারা কলবের আমল করতেন। তারা হাত পায়ের আমল করেননি। জাহেরী আমল আসমান জমিন সমপরিমাণ হলেও কলবের আমলের সমান হবে না। পরিশুদ্ধ আমলই মুক্তি দিতে পারে। সকল বুজুর্গরা তাহাজ্জুদ গোজার ছিলেন।’

আল্লামা শফী বেদায়াতের উপর থাকা মুসলিম ও ওলামাদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘কবর পুজা করবেন না। পীর বুজর্গদের কাছে কিছুই চাইবেন না। তারা দেয়ার মালিক নন। শুধু দোয়া করতে পারেন।’

তিনি বলেন, ‘হযরত আব্দুল কাদের জিলানিরা জিকির আজকার করে বড় হয়েছেন। জিকির ছাড়া নফসের পরিশুদ্ধি আসবে না।’

তিনি নিয়মিত কলব, আকিদার আমল করার উপদেশ দেন।

হেফাজতের আমীর আরও বলেন, ‘আলেমরা শুধু শরীয়াতের ওয়াজ করেন, তরিকতের ওয়াজ করেন না। তাই আমলও কমে যাচ্ছে।’

মাহফিলে তিনি সবাইকে বাইয়াত করান।

এই মাহফিলে আল্লামা শাহ আহমদ শফীর কাছ থেকে দোয়া নিতে যান কক্সবাজার সদর-রামু আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল। ওই সময় স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর কাজি মোরশেদ আহমেদ বাবুও উপস্থিত ছিলেন।

মাওলানা ইয়াছিন হাবীবের পরিচালনায় মাহফিলে আরও ছিলেন মাওলানা মোহাম্মদ মুসলিম, মাওলানা আবুল হাসান, হাফেজ আবদুল হক, মাওলানা মোহছেন শরীফ, মাওলানা মোহাম্মদ আলী, মাওলানা আবদুর রাজ্জাক, মাওলানা সিরাজুল ইসলাম, হাফেজ দিদার, মাওলানা নুর আহমদ, মাওলানা আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।