খরুলিয়ায় বাবাকে ছুরিকাঘাতে খুন করলো ছেলে

প্রেমিকার ঘরের ফ্রিজে ষোলোটি ব্যাগে প্রেমিকের দেহ!

প্রেমিকার ঘরের ফ্রিজে ষোলোটি ব্যাগে প্রেমিকের দেহ!

কক্সবাজার শহরের কাছের ইউনিয়ন ঝিলংজার পূর্ব খরুলিয়ার ডেইঙ্গাপাড়া এলাকায় নিজের ছেলের ছুরিকাঘাতে বাবার মৃত্যু হয়েছে। অভিযোগ উঠেছে, মায়ের উস্কানিতে ছেলে তার বাবাকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেছে।

সোমবার (১২ নভেম্বর) রাত ৯টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

ছুরিকাঘাতে নিহত ওই ব্যক্তি হলেন ছব্বির আহমদ (৩৫)। তিনি বনফুলের ভ্যানগাড়ি চালক। ঘাতক ছেলে মো. রাসেল পালিয়ে গেছে। এলাকাবাসি ছব্বির আহমদের স্ত্রী শারমিন আক্তারকে আটক করেছেন।

নিহতের ছোট ভাই রমিজ আহমদ সাংবাদিকদের জানান, তুচ্ছ বিষয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়। ওই সময় স্ত্রী শারমিন আক্তারের উস্কানিতে বড় ছেলে রাসেল বাবাকে ছুরিকাঘাত করে। ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত বাবাকে দ্রুত স্থানীয়রা উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যান।

তিনি জানান, হাসপাতালে তার ভাইয়ের অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসকরা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন। পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত আড়াইটার ছব্বির আহমদ মারা যান।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য আব্দুর রশিদ সাংবাদিকদের জানান, স্বামী-স্ত্রীর বিরোধের কারণেই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে।

তিনি এলাকাবাসির উদ্বৃতি দিয়ে বলেন, মায়ের উস্কানিতে ছেলের ছুরিকাঘাতে ছব্বির আহমদের মৃত্যু হয়েছে।

আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা তদন্ত করলেই মূল রহস্য বেরিয়ে আসবে বলেও মনে করেন তিনি।

ঝিলংজা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান টিপু সোলতান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, পুলিশকে খবর দেয়া হয়েছে।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ফরিদ উদ্দিন খন্দকার জানান, এলাকাবাসি মোবাইলে বিষয়টি জানিয়েছেন। সরেজমিন তদন্তের মাধ্যমে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।