১১৯০০০ ইয়াবা এলজি ও গুলি উদ্ধার

টেকনাফ সৈকতের বালুচরে সন্দেহভাজন মাদক কারবারির গুলিবিদ্ধ লাশ

টেকনাফ সৈকতের বালুচরে সন্দেহভাজন মাদক কারবারির গুলিবিদ্ধ লাশ

টেকনাফ সৈকতের বালুচরে সন্দেহভাজন মাদক কারবারির গুলিবিদ্ধ লাশ

কক্সবাজারের সীমান্ত উপজেলা টেকনাফে এখন প্রায় প্রতিদিনই কোন না কোন লাশ মিলছে। কোনটি তথাকথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত, নয়তো অজ্ঞাত পরিচয় লাশ। তেমনই অজ্ঞাত পরিচয় এক ব্যক্তির গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে টেকনাফ থানা পুলিশ। গুলিবিদ্ধ লাশের পাশে পাওয়া গেছে এক লাখ ১৯ হাজার পিস ইয়াবা, একটি এলজি ও দুইটি গুলি।

তবে পুলিশের ধারণা, উদ্ধার হওয়া গুলিবিদ্ধ লাশের ব্যক্তিটি মাদক কারবারি হতে পারেন।

টেকনাফ মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) এ বি এম এস দোহা বলেন, রোববার (১১ নভেম্বর) সকাল সাতটার দিকে টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের কাটাবনিয়া সৈকত সংলগ্ন এলাকায় একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেন। পুলিশের একটি দল সেখান থেকে অজ্ঞাত পরিচয় ওই লাশটি উদ্ধার করেন।

তিনি জানান, ওই সময় লাশের পাশে একটি এলজি, দুটি গুলি ও ইয়াবাভর্তি একটি ব্যাগ পাওয়া যায়। ওই ব্যাগে ১ লাখ ১৯ হাজার পিস ইয়াবা পাওয়া যায়।

পুলিশ বলছে, লাশের পরনে ছিল লুঙ্গি ও জ্যাকেট। লাশের শরীরে চারটি গুলির চিহ্ন রয়েছে। পুলিশের ধারণা, ইয়াবার চালান পাচারের সময় দুই দলের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ওই ব্যক্তি গুলিতে নিহত হতে পারেন।

স্থানীয় লোকজনরা জানান, গুলিবিদ্ধ লাশটি পরিচয় কেউ জানাতে পারেননি। তাদের ধারণা, লাশটি মায়ানমারের নাগরিক হতে পারেন।

পুলিশ পরিদর্শক দোহা বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্ধারের পর সুরুতহাল তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছেন।