রক্তের স্রোত দেখে অজ্ঞান মা

উখিয়ায় কলেজ ছাত্রীকে গলা কেটে হত্যা করলো ‘প্রেমিক’

উখিয়ায় কলেজ ছাত্রীকে গলা কেটে হত্যা করলো ‘প্রেমিক’

উখিয়ায় কলেজ ছাত্রীকে গলা কেটে হত্যা করলো ‘প্রেমিক’

কক্সবাজারের কাছের উপজেলা উখিয়ায় শারমিন আক্তার (১৭) নামের এক কলেজছাত্রীকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে।

শনিবার বিকেলে উপজেলার জালিয়াপালং ইউনিয়নের পূর্ব পাইন্যাশিয়া নতুন চরপাড়ার নিজেদের বাড়িতে মর্মান্তিক এই ঘটনা ঘটে।

নিহত শারমিন আক্তার উখিয়ার জালিয়াপালং ইউনিয়নের পূর্ব পাইন্যাশিয়া নতুন চরপাড়া এলাকার আবু তাহেরের মেয়ে ও উখিয়া বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী।

শারমিনের পারিবারিক সূত্র জানান, শনিবার বেলা ২টার দিকে শারমিন কলেজ থেকে বাড়ি আসেন। ওই সময় বাড়িতে কেউ ছিলেন না। বিকেলে মা জাহানারা বেগম বাড়িতে এসে মেয়ের গলাকাটা মরদেহ দেখতে পান।

সূত্র মতে, মেয়ের গলা বেয়ে রক্তের গ্রোত বইতে দেখে অজ্ঞান হয়ে যান মা জাহানারা বেগম।

পরে নিহত কলেজছাত্রীর মা জাহানারা বেগম সাংবাদিকদের বলেন, বাড়িতে কেউ না থাকায় শারমিনের কথিত প্রেমিক বাড়িতে ঢুকে তাকে গলা কেটে হত্যা করে পালিয়ে গেছে। তবে শারমিনের কথিত প্রেমিকের নাম জানাতে পারেননি তিনি।

উখিয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের সাংবাদিকদের বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গেছে পুলিশ। তদন্তের পর এই হত্যাকান্ডের রহস্য জানা যাবে।