সংলাপে থাকছেন না প্রধানমন্ত্রী ও ড. কামাল!

দ্বিতীয় দফার সংলাপে অনুপস্থিত থাকতে পারেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অপরদিকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম নেতা ও গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেনেরও এই সংলাপে থাকার সম্ভাবনা কম।

আওয়ামী লীগ ও গণফোরাম সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সংলাপে শেখ হাসিনার না থাকার বিষয়টি জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর একজন সদস্য। নাম প্রকাশ না করার শর্তে এই নেতা বলেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে দ্বিতীয় দফার সংলাপ হবে ছোট পরিসরে। সেখানে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নাও থাকতে পারেন। সংবিধান সম্পর্কে যারা ধারণা রাখেন তাদের নিয়েই ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে বসা হবে।

অপরদিকে জানা গেছে, ড. কামাল হোসেন শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। যেজন্য সংলাপে তিনিও উপস্থিত থাকতে পারবেন না বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ড. কামাল হোসেনের অসুস্থতার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু।

উল্লেখ্য, বুধবার (৭ নভেম্বর) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণবভনে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলের সঙ্গে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দ্বিতীয় দফার এই সংলাপ হবে। এ সংলাপে অংশ নিতে মঙ্গলবার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ শেষে ঐক্যফ্রন্টের এক বৈঠক হয়।

মঙ্গলবার রাত পৌনে ৮টায় মতিঝিলে ড. কামাল হোসেনের চেম্বারে এই বৈঠক শেষে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহামুদুর রহমান মান্না বলেন, ‘সংলাপে (দ্বিতীয় দফা) দাবি মানা না হলে রাজপথের মাধ্যমে দাবি আদায় করা হবে। রাজপথ খোলা আছে।’

তিনি বলেন, ১১ সদস্যদের প্রতিনিধি দল আগামীকাল (বুধবার) সংলাপে যাবেন। সাত দফা দাবি নিয়েই আলোচনা হবে।