ওআইডিএ’র গবেষণা প্রতিবেদন

২৪০০০ রোহিঙ্গা হত্যা ও ১৭৭১৮ নারীকে ধর্ষণ করেছে মিয়ানমার সেনারা

২৪০০০ রোহিঙ্গা হত্যা ও ১৭৭১৮ নারীকে ধর্ষণ করেছে মিয়ানমার সেনারা

২৪০০০ রোহিঙ্গা হত্যা ও ১৭৭১৮ নারীকে ধর্ষণ করেছে মিয়ানমার সেনারা
২০১৭ সালের অাগস্ট থেকে এখন পর্যন্ত মায়ানারের সেনারা রাখাইনে ২৪ হাজার রোহিঙ্গা মুসলমানকে হত্যা করেছে।চাঞ্চল্যকর এক প্রতিবেদনে এমনটাই দাবি করেছে ওন্টারিও ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট এজেন্সি (Ontario International Development Agency)।

সম্প্রতি এই গবেষণা প্রকাশ করেছে এই আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা।

এতে বলা হয়েছে, এক লাখ ১৪ হাজার রোহিঙ্গা মুসলমান নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। এছাড়াও এক লাখ ১৫ হাজার ঘর বাড়িতে আগুন দিয়েছে মায়ানমারের সেনারা।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মায়ানমারের বর্বর সেনারা ১৭ হাজার ৭১৮ জন রোহিঙ্গা মহিলাকেও ধর্ষণ করেছে।

রাষ্ট্রসংঘের তরফে সম্প্রতি ঘোষণা করা হয়েছে যে, মায়ানমারের সেনারা দেশের মুসলিম অধ্যুষিত রাখাইন প্রদেশে ‘জাতিগত শুদ্ধি’ অভিযান চালিয়েছে। গত বছরের ২৫ আগস্ট থেকে রাখাইন প্রদেশে মুসলমানদের বিরুদ্ধে নতুন করে ব্যাপক গণহত্যা, ধর্ষণ ও লুটপাটের অভিযান শুরু করে।

রোহিঙ্গা মুসলমানরা প্রাণে বাঁচতে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছেন। বর্তমানে বাংলাদেশের কক্সবাজার জেলার বিভিন্ন শরণার্থী শিবিরে ১১ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা শরণার্থী বসবাস করছেন।