পেকুয়ায় শ্রমিক লীগ সম্পাদক শাহাদতকে ছুরিকাঘাতে হত্যার চেষ্টা

পেকুয়ায় শ্রমিক লীগ সম্পাদক শাহাদতকে ছুরিকাঘাতে হত্যার চেষ্টা

পেকুয়ায় শ্রমিক লীগ সম্পাদক শাহাদতকে ছুরিকাঘাতে হত্যার চেষ্টা

কক্সবাজারের উপকূলীয় উপজেলা পেকুয়ায় শাহাদাত হোসেন (৩৮) নামের এক শ্রমিক লীগ নেতাকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাতে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা।

সোমবার (৫ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপজেলা সদরের চৌমুহনী স্টেশন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা তাকে গুরুতর আহতাবস্থায় উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করিয়েছেন।

আহত শাহাদত পেকুয়া উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পেকুয়া সদর ইউনিয়নের মাতবরপাড়া এলাকার মৃত জহিরুল ইসলামের ছেলে। তিনি আবার কক্সবাজারের স্থানীয় দৈনিক দৈনন্দিন পত্রিকায় পেকুয়া উপজেলা প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

পেকুয়া উপজেলা যুবলীগ সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম সাংবাদিকদের জানান, চৌমুহনী স্টেশনে পরিকল্পিতভাবে ছুরিকাঘাত করে শ্রমিক লীগ নেতা শাহাদাতকে হত্যার চেষ্টা করা হয়। অতর্কিত হামলায় গুরুতর আহতাবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, আশা করবো স্থানীয় প্রশাসন তার ওপর হামলাকারীদের খুব শিগগিরই আইনের আওতায় আনবে।

আহতের ভাই আপেল মাহমুদ সাংবাদিকদের বলেন, স্থানীয় তাঁতী লীগ নেতা জায়েদ মুর্শেদ, ইসমাইল ও রাজু নামের তিন যুবকের নেতৃত্বে একদল দুর্বৃত্ত দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে তার ভাই শাহাদাতের ওপর পূর্ব পরিকল্পিতভাবে হামলা চালায়।

তিনি বলেন, সন্ত্রাসিরা আমার ভাইকে ছুরিকাঘাত ও কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে।

পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. মুজিবুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, আহতের বুকে পিঠে ও পেটে ছুরি চালানো হয়েছে। এর মধ্যে পেটের আঘাতটি গুরুতর। এতে তার শরীর থেকে অধিক রক্তক্ষরণ হয়েছে।

তিনি জানান, প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে ঘটনার পরপর এক প্রতিবাদ মিছিল করেছে উপজেলা শ্রমিক লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা। তবে এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সহিংসতা এড়াতে কঠোর অবস্থানে রয়েছে পুলিশ।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাকির হোসেন ভূইয়া সাংবাদিকদের বলেন, খবর পেয়েই দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয় পুলিশ। হামলায় জড়িতদের আটকে অভিযান চালানো হচ্ছে।