দেশেই যুদ্ধবিমান তৈরি করছে ইরান

দেশেই যুদ্ধবিমান তৈরি করছে ইরান

দেশেই যুদ্ধবিমান তৈরি করছে ইরান

দেশীয় প্রযুক্তি ও ডিজাইনে এবার স্থানীয়ভাবে যুদ্ধবিমান তৈরি করছে ইরান। কাওসার নামের এই যুদ্ধ বিমানগুলো দেশটির বিমানবাহিনীতে ব্যবহার করা হবে। ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

প্রতিবেদনে বলা হয়, তেহরানের ওপর ক্রমাগত মার্কিন নিষেধাজ্ঞা বাড়তে থাকার প্রেক্ষিতে নানামুখী পদক্ষেপের মধ্যেই দেশীয়ভাবে বিমান তৈরি শুরু করেছে ইরান। শনিবার দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী আমির হাতামি বিমান তৈরি প্রকল্পের উদ্বোধন করে বলেন, খুব শীঘ্রই বিমান বাহিনীর জন্য প্রয়োজনীয় যুদ্ধবিমান তৈরি করে বহরে যুক্ত করা হবে।

ইরানের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, কাওসার নামের এ যুদ্ধবিমান শতভাগ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি। এই যুদ্ধবিমান বিভিন্ন ধরনের অস্ত্র বহন ও আকাশে অল্প দূরত্বের অভিযান পরিচালনা করতে সক্ষম। তবে সামরিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই যুদ্ধ্বিবিমানটি অবিকল ১৯৬০ এর দশকে যুক্তরাষ্ট্রে তৈরি এফ-৫ যুদ্ধবিমানের মতো।

ইরানের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের ক্রমাগত নিষেধাজ্ঞা বাড়তে থাকার প্রেক্ষিতে সামরিক প্রতিরক্ষা খাতসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে আত্মনির্ভরশীল হওয়ার চেষ্টা করছে ইরান। ২০১৫ সালে ইরানের সঙ্গে করা বিশ্বের ক্ষমতাধর ছয় দেশের পারমাণবিক চুক্তি থেকে বেরিয়ে আসেন ট্রাম্প। এরপর তিনি ইরানের তেল রফতানির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন।

চলতি মাসের ৫ নভেম্বর থেকে ওই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হবে। নিষেধাজ্ঞার আওতায় আটটি দেশ ছাড়া অন্য কোনো দেশ ইরান থেকে তেল আমদানি করতে পারবে না। আমদানি করলে ওই দেশগুলোকেও শাস্তি ভোগ করতে হবে।

এদিকে আজ (৩ নভেম্বর) ইরানের ওপর পুনরায় সব ধরনের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ইরানের জ্বালানি খাত, জাহাজ নির্মাণ শিল্প ও ব্যাংক খাতকে লক্ষ্য করেই মূলত এ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবে। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও এ ঘোষণা দিয়েছেন।