‘এখনো ফুরিয়ে যায়নি ধোনি’

সাম্প্রতিক সময়ে ভারতের ইতিহাসের অন্যতম সফল অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনিকে ঘিরে চলছে নানান সমালোচনা। ৩৭ বছর বয়সে ভারতীয় ক্রিকেটকে দেয়ার মতো ধোনির কিছুই বাকি নেই বলে অভিমত অনেক ক্রিকেট বিশ্লেষকের। এখনই তার অবসরে যাওয়া উচিৎ বলেও পরামর্শ দেন অনেকেই।

তবে অস্ট্রেলিয়ার সাবেক ক্রিকেটার ও আইপিএলে ধোনির সতীর্থ মাইক হাসির ভাবনা আবার ভিন্ন। তার মতে বয়স ৩৭ হলেও এখনই শেষ হয়ে যাননি ধোনি। হাসি মনে করেন এখনো ভারতীয় ক্রিকেটে অবদান রাখতে পারবেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান ধোনি।

এমনকি ২০১৯ সালের বিশ্বকাপে ভারতের হয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবেন ধোনি এমনটাই বিশ্বাস মাইক হাসির। সম্প্রতি ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে হাসি বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে ধোনি ভারতের গুরুত্বপূর্ণ একজন খেলোয়াড়। তার পরিসংখ্যানই তার সামর্থ্যের প্রমাণ দেয়। এখনই সে ফুরিয়ে যায়নি। তার যে অভিজ্ঞতা রয়েছে তাতে আসন্ন বিশ্বকাপে ভারত তার কাছ থেকে অসামান্য সার্ভিস পাবে।’

হাসি আরও বলেন, ‘ধোনি উইকেট কিপিং দক্ষতা এবং শেষদিকে আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করে ইনিংস শেষ করে আসার সামর্থ্য কাজে লাগিয়ে ভারত ভালো কিছু করতে পারে বিশ্বকাপে। একজন চ্যাম্পিয়ন খেলোয়াড়কে কোনভাবেই আপনি ফেলনা ভাবতে পারেন না।’

এসময় ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ধোনির ধীরগতির দুটি ইনিংসের জন্য ধোনির পক্ষে ব্যাট ধরেন হাসি। সিরিজের শেষ দুই ম্যাচে ৬০ এরও কম স্ট্রাইকরেটে ৩৭ ও ৪২ রানের ইনিংস খেলেন ধোনি।

হাসি বলেন, ‘এটা শুধুই মাত্র দুইটি ইনিংস। আমরা জানি ধোনি কেমন খেলে। সে ইনিংসে মাঝামাঝিত সময় নেয়, পরে হাত খুলে খেলে। আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করার দক্ষতা রয়েছে তার। পরিস্থিতি মোতাবেকই খেলে থাকে সাধারণত। দুইটি ইনিংস দেখে তাকে বাতিলের খাতায় ফেলে দেয়ার পক্ষে নই আমি।’