আ.লীগের এজেন্টদের বের করে দেয়া হয়েছে, দাবি হানিফের

বরিশালে আওয়ামী লীগের এজেন্টদের বের করে দেয়া হয়েছে দাবি করে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেছেন, বরিশালের ১নং ওয়ার্ডে সৈয়দ মজিদুল ইসলাম কেন্দ্রে বিএনপির প্রার্থী আওয়ামী লীগের এজেন্টদের বের করে দিয়েছে। পরে অভিযোগের ভিত্তিতে আবারও তাদের প্রবেশ করানো হয়েছে। ১৮ নং ওয়ার্ডে বিএনপির প্রার্থী নৌকা মার্কার এজেন্ট বের করে দিয়েছে। ১৭ নং ওয়ার্ডে আমাদের এজেন্ট বের করে দেয়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছে।

সোমবার সকালে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের পক্ষ থেকে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ দাবি করেন।

একইসঙ্গে রাজশাহী, সিলেট ও বরিশাল সিটি নির্বাচনে পরাজয়ের শঙ্কা থেকে বিএনপি মিথ্যাচার করছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

হানিফ বলেন, যখনই বিএনপির পরাজয়ের শঙ্কা থাকে তখনই তারা সেই নির্বাচনকে বিতর্কিত করার জন্য নানা মিথ্যাচার করে। একই অভিযোগ আমরা আজও দেখেছি। এই ধরনের মিথ্যাচারের ভাঙা রেকর্ড বাজানো বিএনপির পুরনো অভ্যাস।

হানিফ বলেন, আওয়ামী লীগ সব সময় প্রত্যেকটি নির্বাচন আবাধ সুষ্ঠু ও উৎসব মুখর পরিবেশে পরিচালনা করতে বদ্ধপরিকর। আজকে সকাল থেকে তিন সিটিতে আবাধ সুষ্ঠু ও উৎসব মুখর পরিবেশে ভোটগ্রহন চলছে।

সিলেটে বিএনপি বিশৃঙ্খলা করেছে দাবি করে আওয়ামী লীগের এই যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, সিলেটের জালাল উদ্দিন স্কুল ও মিনাবাজার কেন্দ্রে ভোট কেন্দ্র দখলের চেষ্টা করে ব্য র্থ হয়েছে।

দু’একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠু হচ্ছে বলেও দাবি করেন হানিফ।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন- সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক শামীম, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, দফতর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সবুর, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুনন্নাহার লাইলী, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, নির্বাহী সদস্য রিয়াজুল কবির কাউসার প্রমুখ।