অাবার ক্ষমতায় এ‌লে মানু‌ষের জীবনমান উন্নত কর‌বো : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনপ্রশাস‌নের কর্মকর্তা‌দের উ‌দ্দে‌শে ব‌লে‌ছেন, যদি আবার ক্ষমতায় আসতে পারি তাহলে উন্নয়ন কাজগুলো গতিশীল করে মানুষের জীবনমান আরও উন্নত কর‌বো। ‌তবে এটা সম্পূর্ণ নির্ভর করে জনগণের ওপর। আমরা এটা জনগণের ওপর ছেড়ে দেই।

বৃহস্পতিবার রা‌তে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে বাংলাদেশ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত নৈশভোজ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. শফিউল আলম, তথ্যসচিব আবদুল মালেক, অ্যা‌সো‌সি‌য়েশ‌নের মহাসচিব কবির বিন আনোয়ার।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, একটানা দু’বার ক্ষমতায় থাকায় উন্নয়নের ধারাগুলো আজ মানুষের সামনে দৃশ্যমান। এই উন্নয়নের ধারা যেন অব্যাহত থাকে, এটুকুই আমার চাওয়া।

তিনি বলেন, জনগণ যদি সন্তুষ্ট হন তাহলে তারা ভোট দিয়ে আবার নির্বাচিত করবেন। আর যদি না দেয় আক্ষেপ নেই। কারণ যে উন্নয়নের ধারা সৃষ্টি করেছি মানুষ তার সুফল পাচ্ছে।

অনুষ্ঠানে আসা অতিথিদের উদ্দেশে তিনি বলেন, একটা অনুরোধ থাকবে, আমি শুধু প্রধানমন্ত্রী নই, জাতির পিতারও কন্যা। আমার রাজনীতি দেশের জনগণের জন্য। আমার নিজের কোনো চাওয়া-পাওয়া নেই। আমাদের ছেলে-মেয়েদের বলা আছে, লেখাপড়া তাদের বড় সম্পদ। এর বাইরে আমরা তাদের কোনো সম্পদ দিয়ে যাবো না। আমরা শুধু এটুকু চাই, দেশের মানুষ যেন ভালো থাকে। তাদের জীবন যেন উন্নত হয়। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বাংলাদেশ যেন উন্নত সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে গড়ে ওঠে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, পরিষ্কার-পরিছন্নতা, ট্রাফিক রুলসসহ বিভিন্ন বিষয়ে মানুষকে সচেতন করাতে হবে। জঙ্গিবাদ ও মাদকের বিরুদ্ধে প্রচারণা চালাতে হবে। সবাইকে নিয়ে এগুলো মোকাবেলায় একযোগে কাজ করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উন্নয়ন বাজেটের প্রতিটি পয়সা যাতে যথাযথ ব্যবহার হয়, সে বিষয়ে সতর্ক থাকতে সরকারি কর্মচারীদের প্রতি আহ্বান জানান। তি‌নি ব‌লেন, তার সরকার সরকারি সম্পদ লুটপাটের বিরুদ্ধে সচেতনতা সৃষ্টির ব্যবস্থা নিয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, সাধারণ মানুষের সেবা পেতে যেকোনো সমস্যা নিরসনে গণশুনানি কার্যক্রম চলমান রয়েছে। সরকার চার লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকার বাজেট প্রণয়ন করেছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, একটা বিশাল বাজেট দিতে আমরা সক্ষম হয়েছি। সেই বাজেটের প্রতিটি টাকা যাতে যথাযথভাবে ব্যবহার হয় সে বিষয়েও সচেতনতা দরকার।