হজের ওয়াজিব : যা ছুটে গেলে কুরবানি ওয়াজিব

হজ বছরের নির্দিষ্ট দিনে নির্ধারিত কাজ সম্পাদনের মাধ্যমে আদায় করতে হয়। এর মাঝে যে কাজগুলো ফরজ; তা যথাযথ আদায় করতে না পারলে হজ হবে না। বরং পরের বছর তা কাজা আদায় করতে হয়।

আর হজে এমন কিছু কাজ রয়েছে যেগুলো আবশ্যক পালনীয়। কিন্তু তা যদি যথাযথভাবে আদায় করা না যায় তবে তা ছুটে যাওয়ার কারণে কুরবানি আবশ্যক হয়। হজের এ কাজগুলো আদায় করা ওয়াজিব বা আবশ্যক। এগুলো ৬টি-

> ১০ জিলহজ মুজদালিফায় ফজরের পর কিছু মুহূর্ত অবস্থান করা ওয়াজিব।
> সাফা মারওয়া সাঈ করা।
> মিনায় শয়তানকে কংকর নিক্ষেপ করা।
> কিরান ও তামাত্তু হজ পালনকারীদের জন্য কুরবানি করা।

> ইহরাম থেকে হালাল হওয়ার জন্য মাথা মুণ্ডন বা চুল ছাঁটা।
> মিকাতের বাইরের লোকদের জন্য বিদায়ী তাওয়াফ। তবে যারা হজের পর সাধারণ তাওয়াফ করে তবে সেসব তাওয়াফ বিদায়ী তাওয়াফ হিসেবে গণ্য হয়ে যাবে।

উল্লেখিত কাজগুলো যথাযথভাবে আদায় করতে না পারলে বা কোনো কারণে এ কাজগুলো ছুটে গেলে তাকে কাফ্ফারা স্বরূপ কুরবানি দিতে হবে।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহর সব হজ পালনকারীদের যথাযথভাবে হজের কাজগুলো আদায় করার তাওফিক দান করুন। আমিন।