ঈদের তালিকায় জান্নাত ও বেপরোয়া

কোরবানি ঈদের অপেক্ষায় কাটছে সিনেমার দর্শকের দিন। এবারের ঈদে বেশ কিছু সিনেমা রয়েছে মুক্তির তালিকায়। শাকিব-বুবলীর ‘ক্যাপ্টেন খান’, সাইমন-অধরার ‘মাতাল’, বাপ্পী চৌধুরীর ‘ডনগিরি’।

এই তালিকায় নতুন যুক্ত হচ্ছে আরও দুটি সিনেমার নাম। সাইমন-মাহি জুটির ‘জান্নাত’ ও রোশান-ববির ‘বেপরোয়া’ ছবিগুলোও আসছে ঈদে মুক্তি পাবে বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। সিয়াম-পূজার ‘দহন’ ঈদুল আজহায় মুক্তি টার্গেট করে নির্মিত হলেও সেটি ঈদের পরেই হলে আসবে। প্রতিষ্ঠানটি মুক্তি দেবে তাদের ‘বেপরোয়া’ ছবিটি। আজ মঙ্গলবার জাজ কর্ণধার আবদুল আজিজ জাগো নিউজকে এমনটাই নিশ্চিত করলেন।

অন্যদিকে ঈদে মুক্তির জন্য প্রস্তুত হচ্ছে মোস্তাফিজুর রহমান মানিক পরিচালিত ‘জান্নাত’ ছবিটি। নিটোল প্রেমের গল্পের এই ছবিটিতে অনেকদিন পর দর্শকের সামনে হাজির হতে যাচ্ছেন ‘পোড়ামন’খ্যাত সাইমন সাদিক ও মাহিয়া মাহি জুটি। ছবিটির ব্যাপারে নির্মাতা মানিক বলেন, ‘নানা কারণেই ছবিটি ঘিরে দর্শকের অনেক আগ্রহ তৈরি হয়েছে। এর গল্প, শিল্পীদের অভিনয়, গান ও নির্মাণে রুচিশীল বিনোদনের ছাপ রয়েছে। চেষ্টা করেছি একটি বড় পরিসরের সিনেমা উপহার দিতে। তাই আসছে ঈদে ছবিটি মুক্তির চেষ্টা করছি। এ ব্যাপারে আনুষ্ঠানকিভাবে শিগগিরই জানানো হবে।’

ছবির নায়ক সাইমন সাদিক বলেন, ‘সিনেমা মুক্তির বিষয়টি সম্পূর্ণই পরিচালক ও প্রযোজকের উপর নির্ভর করে। আমি নিশ্চিত নই ‘জান্নাত’ ঈদে আসবে কী না। তবে যদি আসে সেটি হবে দারুণ একটি ব্যাপার। ঈদের সময়টাতে দর্শক সাধারণত ভালো সিনেমা দেখতে চায়। সেদিক থেকে ‘জান্নাত’ পারফেক্ট একটি সিনেমা। ছবিটি দেখার পর সেন্সর বোর্ডের কর্মকর্তারাও উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেছেন। আমি ঈদে ‘জান্নাত’র মুক্তির সিদ্ধান্তকে অভিনন্দন জানাই।’

‘মাতাল’র পর ‘জান্নাত’ মুক্তি পেলে এক ঈদে দুটি ছবি হয়ে যাবে সাইমনের। নিজের সঙ্গে নিজের প্রতিযোগিতার এই ব্যাপারটি কতোটা ইতিবাচক হবে জানতে চাইলে এই চিত্রনায়ক বলেন, ‘এটা কঠিন একটি অনুভূতি যখন একজন নায়কের একাধিক ছবি এক সপ্তাহে মুক্তি পায়। আর সেটা ঈদের বাজারে হলে চাপটা আরও বেড়ে যায়। তবে দিনশেষে দর্শক ভালো সিনেমার পক্ষে। ‘মাতাল’ ও ‘জান্নাত’, আমার দুটি সিনেমাই গল্প ও নির্মাণে বেশ মজবুত। দুটি ছবির নির্মাতারাও ইন্ডাস্ট্রিতে সফল ও জনপ্রিয়। এমন ভালো ছবি নিয়ে চাপমুক্ত থাকা যায়।’

 

‘জান্নাত’ ছবিতে সাইমন-মাহি ছাড়া আরও অভিনয় করেছেন আলীরাজ, মিশা সওদাগর, মারুফ, শিমুল খানসহ চলচ্চিত্রের একঝাঁক প্রিয়মুখ।

এদিকে ‘বেপরোয়া’ নিয়ে জাজ প্রধান আবদুল আজিজ বলেন, ‘ঈদে ‘দহন’র পরিবর্তে আমরা ‘বেপরোয়া’ মুক্তির সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এই ছবিটি মুক্তির জন্য প্রস্তুত আছে। আর ছবিটি নিয়ে দর্শকেরও আগ্রহ রয়েছে। কোরবানী ঈদে জাজের এই ছবিটি বাজিমাত করবে বলে আমাদের বিশ্বাস।’

ঈদে ‘বেপরোয়া’র মুক্তি উপলক্ষে বেশ উচ্ছ্বসিত। তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‘ঈদে নায়ক হিসেবে নিজের সিনেমা মুক্তির খবরটি সবসময়ই আনন্দের। এসময় দর্শকেরা আগ্রহ নিয়ে সিনেমা দেখতে হলে যান। আশা করছি আসছে ঈদে দর্শকের সেরা পছন্দ হবে ‘বেপরোয়া’।’

‘বেপরোয়া’ ছবির মাধ্যমে প্রথমবার জুটি বেঁধে ঢাকাই ইন্ডাস্ট্রিতে অভিষিক্ত হচ্ছ্নে রোশান ও ববি। এটি পরিচালনা করেছেন কলকাতার নির্মাতা রাজা চন্দ। গেল বছর এই ছবির বেশিরভাগ শুটিং হয়েছিল ভারতের তেলেঙ্গানা রাজ্যের রামুজি ফিল্ম সিটিতে।

রোশান-ববি ছাড়াও ‘বেপরোয়া’ ছবিতে আরও দেখা যাবে শহিদুল আলম সাচ্চু, কাজী হায়াৎ, কমল, রেবেকা, চিকন আলী প্রমুখের অভিনয়।