কতদিন হয় না ভালোবাসাবাসি!

ভালোবাসতে দিবসের দরকার হয় না। কিন্তু দিবস যখন আছে, তখন ভালোবাসাগুলোকে ঝালিয়ে নিতে সেটা বাড়তি পাওনাই বটে। ভাবার কোনো কারণ নেই ‘ভ্যালেন্টাইন’স ডে’ কেবলই তরুণদের জন্য। বরং প্রবীণ দম্পতিরাও দীর্ঘদিনের জঙ ধরে যাওয়া সম্পর্কটাকে শাণ দিয়ে ফেলুন এবারের ‘ভ্যালেন্টাইন’স ডে’ তেই।

মনোযোগী হোন
প্রযুক্তির অতিরিক্ত ব্যবহার আমাদের সম্পর্কগুলোকে যান্ত্রিক করে তুলছে। এবারের ভ্যালেনটাইন ডে তে অন্তত ডিভাইসগুলো দূরে রাখুন। সঙ্গীর প্রতি পূর্ন মনোযোগ দিন। খোশ গল্প করুন।

সারপ্রাইজ দিন
সারপ্রাইজ কার না ভালো লাগে? বাসায় গিয়ে দেখলেন আপনার ড্রয়ারে নতুন একটি মোবাইল ফোন। চকলেট, নতুন পোশাক, পছন্দের খাবার যেকোনো কিছুই চমকে দিতে পারে আপনার প্রিয় মানুষটিকে।

ঘুরে আসুন
সম্পর্কের একঘেয়েমি কাটিয়ে তুলতে সঙ্গীকে নিয়ে ঘুরতে বেড়িয়ে পড়ুন। দৈনন্দিন সংগ্রাম, সাংসারিক ঝামেলা, মানসিক চাপ একদিকে রেখে ভালোবাসা দিবসের বিকেলে রিকশায় চেপে ঘুরে আসুন শহরের এমাথা ওমাথা। সুন্দর মুহূর্তগুলো সেলফিবন্দি করে রাখুন।

‘স্পর্শ’ বুঝুন
অনেকেই সম্পর্কের স্পর্শগুলোকে ততটা গুরুত্ব দেন না। ‘স্পর্শ’ মানে শুধু যৌনতা নয়। প্রেমময় স্পর্শ সম্পর্ককে আরও দৃঢ় করে।

গান শুনুন
একসময় দুজনেই গুনগুন করতেন যে গানে, সময়ের অভাবে হয়তো ভুলেই বসেছেন সেসব গান। আসছে ভালোবাসা দিবসে পছন্দের গানগুলো শুনতে পারেন একই হেডফোনে। মধুর স্মৃতিগুলো গানে গানে ফিরে আসবে। নতুন রং পাবে ভালোবাসা।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!