পাত্র মাতাল, বিয়ে ভেঙ্গে দিলেন পাত্রী!

পাত্র মাতাল, বিয়ে ভেঙ্গে দিলেন পাত্রী!

পাত্র মাতাল, বিয়ে ভেঙ্গে দিলেন পাত্রী!

ভারতের বিহার জেলার রোহতাস থেকে ৭০ কিলোমিটার পেরিয়ে বরযাত্রীসহ জাকজমক করে বিয়ে করতে গিয়েছিলেন বিট্টু পান্ডে। রাজধানী পাটনা থেকে প্রায় ১৩০ কিলোমিটার দূরে বক্সার জেলায় সুজাতপুর গ্রামে বসেছিল বিয়ের আসর।

কিন্তু বিট্টুকে ওই বিয়ের আসর থেকে বউ ছাড়া একাই ফিরে আসতে হয়েছে বাড়িতে!

ওই বিয়ের আসরে উপস্থিত কয়েকজনকে উদ্ধৃত করে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, মন্ত্র পড়া সাঙ্গ হয়ে গিয়েছিল, শুধু বাকি ছিল হিন্দু রীতি অনুযায়ী নববিবাহিতা স্ত্রীর সিঁথিতে সিঁদুর পরিয়ে দেয়া। ঠিক তখনই ঘটল ব্যাপারটা।

কনে রাণী কুমারী উঠে পড়লেন বিয়ের পিঁড়ি থেকে! ‘ওর তো বিয়ে হয়ে গেছে – মদের সঙ্গে। আমাকে বিয়ে করতে হবে না আর,’ বলে মন্ডপ ছেড়ে বেরিয়ে যান ওই তরুণী।

পাত্র পক্ষ স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছে, পাত্র বিয়ের সময়ে ঠিকমতো মন্ত্র উচ্চারণ করতে পারছিল না, কথা জড়িয়ে যাচ্ছিল, পা টলে যাচ্ছিল – এই অভিযোগ তুলেই কনে উঠে যায়।

পাত্রের আত্মীয়-স্বজনরা কিন্তু বলছেন, ‘বরযাত্রীরা যখন নাচানাচি করতে করতে যাচ্ছিল, তখন পর্যন্তও তো সব ঠিক ছিল। তারপর যে কী হলো বোঝা যাচ্ছে না! আমরা চেষ্টা করছি কনে পক্ষকে বোঝানোর।’

বিট্টু পান্ডে মদ খেয়ে মাতাল হয়ে গিয়েছিল কী না, তা নিয়ে অবশ্য কিছুই বলছে না তার পরিবার।

বিহারে গত বছর এপ্রিল মাস থেকে মদ নিষিদ্ধ হয়ে গেছে। মদ খাওয়া, রাখা বা বিক্রি করতে গিয়ে ধরা পড়লে ১০ বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে।

সূত্র: বিবিসি বাংলা