‘সাদ্দাম বাহিনী’ প্রধান ৩ সহযোগীসহ গ্রেপ্তার, অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার

‘সাদ্দাম বাহিনী’ প্রধান ৩ সহযোগীসহ গ্রেপ্তার, অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

কক্সবাজার শহরের অন্যতম সন্ত্রাসি গ্রুপ ‘সাদ্দাম বাহিনী’র প্রধান সাদ্দামকে তিন সহযোগীসহ গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ওই সময় তাদের কাছ থেকে দেশে তৈরি আগ্নেয়াস্ত্র ও গোলাবারুদ, মোবাইল, কিরিচ ও রামদা উদ্ধার করা হয়।

শনিবার (পহেলা মে) ভোর ৬টার দিকে ডিবি পুলিশ, সদর থানা ও কক্সবাজার জেলা পুলিশের কয়েকটি টিম যৌথ অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে।

সন্ত্রাসি সাদ্দামের বিরুদ্ধে অস্ত্র, ডাকাতিসহ নানা অপরাধে ১০টি মামলা রয়েছে।

সূত্র মতে, শহরের ক্রাইমজোনখ্যাত এলাকা রুমালিয়ারছড়ার পাহাড়ি এলাকা, বাঁচামিয়ার ঘোনা, তারাবনিয়ারছড়া, সমিতি বাজার, মাটিয়ারতলী, বিজিবি ক্যাম্প, সাত্তার ঘোনা ও কারাগারের পেছনের এলাকা নিয়ন্ত্রণ করতো কয়েকটি অপরাধী চক্র। চিহ্নিত ইয়াবাকারবারি ও জেলফেরত আসামিরা এলাকায় নতুন করে সংগঠিত হয়ে গড়ে তুলেছিল দূর্ধর্ষ সন্ত্রাসি বাহিনী। সেখানে ডাকাতি, ছিনতাই ও মাদক ব্যবসা চালিয়ে নিতো তারা।

‘সাদ্দাম বাহিনী’ প্রধান ৩ সহযোগীসহ গ্রেপ্তার, অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার

সুত্র মতে, তেমনই একটি গ্রুপের প্রধান সাদ্দাম। সন্ত্রাসি সাদ্দামের বাহিনীতে ১২ জনের একটি সক্রিয় টিম রয়েছে। শনিবার ভোরে পুলিশের এই অভিযানে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা গেছে।

জেলা পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রফিকুল ইসলাম জানান, সাদ্দামকে জিজ্ঞাসাবাদ করে তার সহযোগীদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বলেন, পাহাড় হবে সাধারণ মানুষের নিরাপদ আশ্রয়স্থল। শহরে কোন ধরণের সন্ত্রাসির স্থান হবে না। সবাইকে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

এদিকে সন্ত্রাসি সাদ্দাম গ্রেপ্তার হওয়ার পর এলাকায় অনেকটা স্বস্তি এসেছে। আইনপ্রয়োগকারি সংস্থা গুলোকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছেন সেখানকার বসবাসকারি সাধারণ মানুষ।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!