বাংলা একাডেমির নতুন মহাপরিচালক কক্সবাজারের সন্তান কবি মূহম্মদ নূরুল হুদা

বাংলা একাডেমির নতুন মহাপরিচালক কক্সবাজারের সন্তান কবি মূহম্মদ নূরুল হুদা

আজাদ মনসুর, লেখক ও সাংবাদিক
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

পর্যটন রাজধানী কক্সবাজার তথা দরিয়ানগরের গর্বিত সন্তান, প্রথিতযশা ও জাতিস্বত্তার কবি, ঔপন্যাসিক, সাহিত্যিক, কথাশিল্পী ও হোমিওপ্যাথিক বিশেষঞ্জ মুহম্মদ নূরুল হুদাকে বাংলা একডেমির নতুন মহাপরিচালক নিয়োগ দিয়েছে সরকার।

সোমবার (১২ জুলাই) জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

যোগদানের দিন থেকে পরবর্তী ৩ বছর মেয়াদে তাকে বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক পদে নিয়োগ দেয়া হলো।

ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ মে মারা যান বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী। এরপর থেকে ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন একাডেমির সচিব এএইচএম লোকমান।

কবি মুহম্মদ নূরুল হুদার বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবন
মুহম্মদ নূরুল হুদা, জাতিসত্ত্বার কবি, কথাশিল্পী, ডাক্তার, সাংবাদিক

জন্ম
৩০ সেপ্টেম্বর ১৯৪৯, পোকখালী, ঈদগাঁও, কক্সবাজার। পিতা মুহাম্মদ সেকান্দর। মা আনজুমান আরা বেগম। এসএসসি ১৯৬৫, ঈদগাঁও হাইস্কুল: কুমিল্লা বোর্ডের মানবিক বিভাগে মেধা তালিকায় দ্বিতীয় স্থান। এইচএসসি ১৯৬৭, ঢাকা কলেজ। বিএ অনার্স ১৯৭০, এমএ ১৯৭১, ইংরেজী ভাষা ও সাহিত্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। রিসার্স ইস্টার্ন (আর,আই), ইস্ট ওয়েস্ট সেন্টার, হনলুল হাওয়াই, আমেরিকা।

১৯৭১ সালে মক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। মুক্তিযোদ্ধাদের সংগঠিত করতে পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে সহযোগিতা প্রদান করেন।

অধ্যাপনা
ইংরেজী বিভাগ, তালশহর কলেজ ব্রাহ্মণবাড়িয়া ১৯৭০-১৯৭১, শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ ১৯৭২ প্রভাষক, খন্ডকালীন, ইংরেজী বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। ১৯৭৩ সালে বাংলা একাডেমীতে ২০০২ সালে প্রত্যাবর্তন করে একডেমীর পরিকল্পনা প্রশিক্ষণ ও পাট্যপুস্তক বিভাগের দায়িত্ব পালন করেন।

নজরুল ইনস্টিটিউটের নিবার্হী নির্বাহী পরিচালক হিসাবে নজরুল জন্মশতবষির্কী উদযাপন জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব এবং দেশে-বিদেশে নজরুল চর্চা ও প্রসারে ব্যাপক ভূমিকা পারন করেন। বাংলা একাডেমি আয়োজিত একুশে বই মেলার সদস্য সচিব হিসাবে একাধিকবার সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৬ সালে তিনি বাংলা একডেমীর অন্যতম পরিচালক হিসাবে অবসরকালিন ছুটি (এলপিআর) গ্রহণ করেন।

সাহিত্যচর্চা
প্রাশাসনিক দায়িত্বের পাশাপাশি দেশের একজন শীর্ষস্থানীয় হোমিও চিকিৎসক হিসাবে খ্যাত। ঢাকা ও কক্সবাজারের ঈদগাওতে নিজস্ব চেম্বারে জটিল রোগীদের চিকিৎসা করেন। প্রতিষ্ঠাতা সাহিত্য সম্পাদক : উর্মিমালা সাহিত্য সংসদ (১৯৬৫) ঈদগাও কক্সবাজার। সংসদের মুখপত্র হিসাবে জেলার প্রথম সাহিত্য সাময়িকী কলতান (১৯৬৫) সম্পাদনা। ৬০ এর দশকে ঢাকায় লেখক সংগ্রাম শিবির প্রতিষ্ঠায় অন্যতম ভূমিকা পালন করেন।

স্বাধীনতার পরে লেখক সংগ্রাম শিবির বাংলাদেশ লেখক শিবির নামে প্রতিষ্ঠিত হলে তিনি এর অন্যতম আহবায়ক নির্বাচিত হন। পরে তিনি বাংলাদেশের লেখকদের প্রতিনিধিত্বশীল সংগঠন বাংলাদেশ রাইটার্স ক্লাবের আন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ও সাধারন সম্পাদক, র্বতমানে এর সভাপতি। প্রতিবছর ৩১ ডিসেম্বর বিশ্ব লেখক দিবস এর প্রবক্তা হিসাবে দেশে বিদেশে ব্যাপক আলেচিত।

এছাড়া তিনি তৃণমূলীয় লোক সাহিত্য ও সংস্কৃতির সন্ধান সংরক্ষণ ও মুল্যায়নে গঠিত প্রতিষ্ঠাতা ও কেন্দ্রিয় পরিচালক।

প্রকাশিত কাব্য
শোণিতে সমুদ্রপাত (১৯৭২) আমার সশস্ত্র শব্দবাহিনী (১৯৭৫) শেভাযাত্রা দ্রাবিড়ার প্রতি (১৯৭৫) অগ্নিময়ী হে মৃম্ময়ী(১৯৮০) আমরা তামাটে জাতি (১৯৮১) শুক্লা শকুন্তকলা (১৯৮০) নির্বাচিত কবিতা(১৯৮৫) যিসাস মুজিব(১৯৮৫) হনলুলু ও অন্যান্য কবিতা (১৯৮৭) কুসুমের ফণা (১৯৮৮)বারো বছরের গল্প (১৯৮৮) এক জনমে লক্ষ(১৯৮৮) গালেবের কছে ক্ষমা প্রার্থনা (১৯৮৯) আমি যদি জলদাস তুমি জলদাসী(১৯৯০) হ্যামিলনের রাজা (১৯৯০) তেলাপোকা (১৯৯০) জাতিসত্তার কবিতা (১৯৯২) প্রিয়াংকার জন্য পঙক্তিমালা (১৯৯২) ভিনদেশী প্রেমের কবিতা (১৯৯৩) অরক্ষিত সময় (১৯৯৩) প্রেমের কবিতা (১৯৯৪) দিগন্তের খোসা ভেঙ্গে(১৯৯৪) ভালোবাসার বুক পকেটে(১৯৯৪) lesbian clouds and other poems (১৯৯৪) আমার কপালে ও সময়ের ভাই ফোটা ১৯৯৫) প্রিয় পঙক্তিমালা (১৯৯৬) মুজিব বাড়ী (১৯৯৬) দেখাহলে একা হয়ে যাই (১৯৯৮) সিকোরাক্স (১৯৯৮) আমার চুড়ান্ত শব্দ ভালবাসা (১৯৯৮) আদিষ্ট হয়েছি আমি দীর্ঘ জাগড়নে (১৯৯৯) স্মৃতিপুত্র (২০০০) হাজার কবিতা(২০০০) কাব্য সমগ্র(২০০১) দারিয়ানগর কাব্য(২০০১) selected poesms (২০০৩) পদ্মাপড়ের ঢেউ সোওয়ার (২০০৪) পূন্য বাংলা সুর স্বর (২০০৫) কোরান কাব্য (২০০৫) সময় মাড়ানোর গল্প (২০০৬)। প্রবন্ধ গ্রন্থ : শর্তহীন শর্তে (১৯৮১) লক্ষন সংহিতা (১৯৮২) মহানবী (১৯৮৩) সার্ত্র অন্যান্য প্রসঙ্গ (১৯৮৩) flaming flowers:poet Response to the emergence of bangladesh (১৯৮৬) রবীন্দ্র প্রকৃতি ও অন্যান্য প্রসঙ্গ (১৯৮৬) সৃজনশীলতা অন্যান্য প্রসঙ্গ (১৯৯৮) নান্দনিক নজরুল (২০০২), Nazrul’s Aesthetics and other Aspects (২০০১) উপন্যাস :জন্ম জাতি (১৯৯৪),বাস্তাহারা (১৯৯৪), মৈন পাহাড় (১৯৯৫) রোমিও জুলিয়েট(১৯৯৮) নীল সমুদ্রের ঝড় (১৯৯৮)। নাটক : মৈন কুমার ও তামাটে কিশোর (১৯৯৮)। ভ্রমন কাহিনী :মনপবনের নাও (২০০৪) অনুবাদ : পরিবর্তনের পথে (১৯৭২) আগামেনন(১৯৮৭) ইউনুস এমরের কবিতা (১৯৯২) IN BLISSFUL HELL (১৯৯৩) ফ্লেনারী ও কনরের গল্প (১৯৯৭) WEDDING AND WILD KITI (২০০১), HASAN RAJA (SUBTITLE FLIM, ২০০১)

শিশুতোষ
বাংলা একাডেমী ছড়ায় বর্ণমালা (১৯৯৪), প্রাণের মিনার শহীদ মিনার শহীদ মিনার (১৯৯৪), স্বাধীনতার ছড়া (২০০১), পাখির ছড়া (২০০১), রূপকতার কাব্য : সাত ভাই চম্পা (২০০১), রাজার পোশাক (২০০১), চাঁদের বুড়ো চাঁদের বুড়ি (২০০১), ব্যাঙকুমার (২০০১), ছোটদের নজরুল জীবনী (২০০১), ছোটদের রবীন্দ্র জীবনী (২০০১), ছোটদের বেগম রোকেয়া (২০০১), ছোটদের জীবনানন্দ দাশ (২০০১), ছোটদের মাইকেল মধুসূদন দত্ত (২০০১)।

সম্পাদনা
কবি মধুসূদন (১৯৮৪), কবিতা ১৩৯০ (১৯৮৫), হুমায়ুন কবির রচনাবলী (১৯৮৪), শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মরণে কবিতা গুচ্ছ (১৯৮৪), কবিতা ১৩৯০ (১৯৮৫), আবুল হাসানের অগ্রন্থিত কবিতা (১৯৮৬), বাংলাদেশের নির্বাচিত কবিতা (১৯৮০), বিশ্বাস (১৯৮০), ছোটদের অভিধান (অন্যতম সংকলক), হোমিওপ্যাথিক পরিভাষা (১৯৮৯), কবিতা : গণ আন্দোলন (১৯৯১), সাহিত্য মঞ্জুষা (১৯৯১), Tales to Tell (1991), Stories for the Young (১৯৯১), Bangla Academy English-Bengali Dictionary (১৯৯৩, অন্যতম সংকলক), শতাব্দীর শ্রেষ্ঠ প্রেমের পঙক্তি (১৯৯৫), জাতীয় পর্যায়ে নজরুল জন্ম শতবার্ষিকী উদযাপন স্মারক গ্রন্থ (১৯৯৬), নজরুল সঙ্গীত স্বরলিপি সংগ্রহ (১ম খন্ড থেকে ১৭শ খন্ড পর্যন্ত ১৯৯৭) আদি রেকর্ড ভিত্তিক নজরুল সঙ্গীতের নির্বাচিত বাণীসংকলন (১৯৯৭) নজরুলের নিবাচির্ত প্রবন্ধ (১৯৯৭) নজরুলের উপন্যাস সমগ্র (১৯৯৭) নজরুলের নির্বাচিত কিশোর সাহিত্য (১৯৯৭) নজরুলের র্নিবাচিত ছোট গল্প (১৯৯৭) নজরুলের হারানো গানের খাতা (১৯৯৭) নজরুল ও বঙ্গবন্ধু (১৯৯৭), NAZRUL : AN EVALUATION (১৯৯৭) POETRY OF NAZRUL ISLAM IN ENGLISH TRANSLATION (১৯৯৭), জাতীয় পযার্য়ে নজরুল জন্ম শতবার্ষিকী উদযাপন ১৪০৫-১৪০৬স্মারক গ্রন্থ (১৯৯৯), নজরুলের মক্তব সাহিত্য (২০০১) নজরুলের লাঙ্গল (২০০১) নজরুলের জন্ম শত বার্ষিকী স্মরণিকা (১৯৯৯) শতাব্দীর শ্রেষ্ট কবিতা (২০০৫)। সম্পাদিত পত্রিকা : কলতান (১৯৬৫)অধোরেখ (১৯৭০) বহুবচন(১৯৭২) হে স্বদেশ (১৯৯২) POIEMA (১৯৮০) BAMGLA ACADEMY JOURNAL (১৯৮৩-আগষ্ট ১৯৯৬) বাংলা একাডেমী পত্রিকা (১৯৮৩ থেকে পর্যন্ত) নজরুল ইনটিটিউট পত্রিকা (১৯শ সংকলন ১৯৯৭, ২০’শ সংকলন ১৯৯৮) NAZRUL INSTITUTE JOURNAL VOL. 4&5 (১৯৯৭) লেখক (১৯৯৫ থেকে)

পুরস্কার
আলওয়ালা সাহিত্য পুরস্কার (১৯৮৩) যশোর সাহিত্য পরিষদ পুরস্কার (১৯৮৩) আবুল হাসান কবিতা পুরস্কার (১৯৮৩) চট্টগ্রাম আওয়ামী শিল্পী সংবর্ধনা ও পুরস্কার (১৯৮৬)বাংলা একডেমী পুরস্কার (১৯৮৮) ককসবাজার পদক (১৯৮৯) হুমায়ন কাদির স্মৃতি পুরস্কার (১৯৯৪) কবি আহসান হাবিব কবিতা পুরস্কার (১৯৯৫) যুক্তরাষ্টের আই্ওসপি ঘোষিত পয়েন্ট অব ইন্টান্যাাশনাল মেরিট ওপয়েট অব দ্য ইয়ার (১৯৯৫) তুরস্কের প্রেসিডেন্ট সুলেমান ডেমিরেল কর্তৃক প্রদত্ত রাষ্ট্রিয় সম্মননা (১৯৯৭) নজরুল ফাউন্ডেশন সম্মননা (২০০০, কলকাতা) জীবনানন্দ জন্মশত সম্মননা (১৯৯৯, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ) নজরুল জন্মশতবার্ষিকী সম্মননা (১৯৯৯, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ) নজরুল জন্মশতবার্ষিকী গুণীজন সংবর্ধনা (বাংলাদেশ আইনজীবী সংসদ, ২০০১) নজরুল জন্মশতবর্ষ উদযাপন স্মারক, যশোর (১৯৯৯) ভাষা সাহিত্য সম্মননা কবিতা ১৯৯৯ ককসবাজার প্রেসক্লবের রজত-জয়ন্তী গুণীজন সংবর্ধনা (২০০১) জীবনানন্দ পুরস্কার (২০০১) ককসবাজার সাহিত্য একাডেমী পুরস্কার (২০০১) সুকান্ত সাহিত্য পুরস্কার (২০০৩) কক্সবাজার জেলা প্রসাশন পদক (২০০৪) মহাদিগন্ত পুরস্কার (কলকাতা ২০০৭)।
তথ্যসূত্র: কক্সবাজার সাংবাদিক কোষ

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!