৪০ হাজার ইয়াবা, ৪ অস্ত্র উদ্ধার

‘বন্দুকযুদ্ধে’ যেভাবে মারা পড়ল হাকিম ডাকাতের দুই ভাই ও দুই সহযোগী

শহরে দু’টি লাশ পড়লো মধ্যরাতে, তাদের একজন ছিনতাইকারি রিফাত

হেলাল উদ্দিন, টেকনাফ
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

কক্সবাজারের সীমান্ত উপজেলা টেকনাফের গহীন পাহাড়ে পুলিশের সাথে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শীর্ষ হাকিম ডাকাতের দুই ভাইসহ ৪ ডাকাত নিহত হয়েছে৷

শুক্রবার (২৬ জুন) দুপুরে টেকনাফের হোয়াইক্যং-শামলাপুরের মাঝামাঝি গহীন পাহাড়ে এই ‘বন্দুকযুদ্ধে’র ঘটনা ঘটে৷

এ সময় ঘটনাস্থল থেকে শীর্ষ ডাকাত আব্দুল হামিদ পালিয়ে যায়৷

নিহতরা হলেন রোহিঙ্গা হাকিম ডাকাতের দুই ভাই বশির ও হামিদ, তাদের দুই সহযোগী রফিক ও রইঙ্গা।

কক্সবাজার পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন জানান, আলোচিত রোহিঙ্গা ডাকাত আব্দুল হাকিম অবস্থান করার গোপন সংবাদের ভিত্তিতেই শুক্রবার (২৬ জুন) সকাল থেকে উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের চাকমা পাড়া পাহাড়ি এলাকায় কক্সবাজার সদর সার্কেল ও টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমারের নেতৃত্বে পুলিশের একটি বিশেষ টিম অভিযান চালায়৷

ওই সময় ডাকাত দল পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পুলিশের উপর গুলি চালায়৷ এসময় পুলিশের তিন সদস্য আহত হলে আত্মরক্ষায় পুলিশও গুলি চালায়৷

তিনি দাবি করেন, গোলাগুলির এক পর্যায়ে ডাকাত দল উখিয়া উপজেলার মনখালী পাহাড়ে পালিয়ে যায়৷ পরে ঘটনাস্থল তল্লাশি করে ৪টি দেশে তৈরি অস্ত্র, ২০টি কার্তুজ ও ৪০ হাজার পিস ইয়াবাসসহ চারজনের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়৷

এছাড়াও শীর্ষ ডাকাত আব্দুল হামিদসহ ২/৩ জন ডাকাত পালিয়ে যায়৷

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!