পাচারকারিদের উল্টে দেয়া নৌকায় মিললো ৭ লাখ ইয়াবা

পাচারকারিদের উল্টে দেয়া নৌকায় মিললো ৭ লাখ ইয়াবা

নিজস্ব প্রতিবেদক, টেকনাফ
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

কক্সবাজারের সীমান্ত উপজেলা টেকনাফের নাফ নদী থেকে সাত লাখ পিস ইয়াবা জব্দ করেছে কোস্টগার্ড। কোস্টগার্ডের টেকনাফ স্টেশনের সদস্যরা এই অভিযান চালান।

বৃহস্পতিবার দিবাগত মধ্যরাতে কোস্টগার্ডের ধাওয়া খেয়ে নৌকা উল্টে দিয়ে পালিয়ে যায় ইয়াবা পাচারকারিরা। উল্টে দেয়া ওই নৌকা তল্লাশি করে ৭ লাখ পিস ইয়াবা পাওয়া গেছে বলে দাবি করছেন কোস্টগার্ডের মিডিয়া কর্মকর্তা লে. বিএন হায়াত ইবনে সিদ্দিক।

তিনি জানান, নৌকা উল্টে দিয়ে পাচারকারীরা সাঁতরে কূলে উঠে পালিয়ে যাওয়ায় এই ঘটনায় কাউকে আটক করা যায়নি। ইয়াবা ও নৌকাটি টেকনাফ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

কোস্টগার্ড জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার (২৬ জুলাই) মধ্যরাতে খবর আসে টেকনাফ স্থল বন্দরের নিকটবর্তী জাইল্লার দ্বীপ এলাকায় নাফ নদী পেরিয়ে ইয়াবার একটি বড় চালান বাংলাদেশে ঢুকছে। এই খবরে কোস্টগার্ডের একটি টিম বিশেষ অভিযানে বেরিয়ে নদীতে সন্দেহজনক একটি কাঠের নৌকাকে ধাওয়া করে। নৌকাটি কিছুদূর গিয়ে উল্টে যায় এবং ওই নৌকার আরোহীরা সাঁতরে পাড়ে উঠে জঙ্গলে আত্মগোপন করে। পরে ভাসমান নৌকাটিতে তল্লাশি করে কয়েকটি বস্তা থেকে সাত লাখ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট পাওয়া যায়।

এদিকে টেকনাফ সীমান্ত পথ ব্যবহার করে এখনও পাচার হয়ে আসছে মিয়ানমারে উৎপাদিত মরণ নেশা ইয়াবা। পাচার প্রতিরোধে বাংলাদেশের আইন-শৃংখলা বাহিনীর দায়িত্ব বিভিন্ন সংস্থার সদস্যরা যতই কঠোর হচ্ছে, মাদক কারবারে জড়িতরা ততই ভিন্ন ভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে পাচার চালিয়ে যাচ্ছে।

তারই ধারাবাহিকতায় টেকনাফ কোস্টগার্ড সদস্যরা অভিযান চালিয়ে ৭ লাখ মালিকবিহীন ইয়াবা উদ্ধার করতে পেরেছেন।

অপরদিকে টেকনাফ সীমান্ত থেকে মাদকপাচার প্রতিরোধে করার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের সদস্যরা কঠোর ভুমিকা পালন করে যাচ্ছেন।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!