চকরিয়ায় স্বাস্থ্যবিধি না মেনে পশুর হাট

চকরিয়ায় স্বাস্থ্যবিধি না মেনে পশুর হাট

নিজস্ব প্রতিবেদক, চকরিয়া
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

কক্সবাজারের বৃহত্তর উপজেলা চকরিয়ায় কঠোর লকডাউন ও স্বাস্থ্যবিধি না মেনে ইলিশিয়া স্কুল মাঠে পশুরহাট বসানোর অভিযোগ উঠেছে। এতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধি ও স্বাস্থ্যঝুঁকিতে পড়েছেন গরু ক্রয়-বিক্রয় করতে আসা সাধারণ মানুষ।

রোববার (১১ জুলাই) সকাল থেকে এই বাজার বসে। অভিযোগ রয়েছে, এই হাটে স্বাস্থ্যবিধি মানার কোন বালাই নেই। অধিকাংশ ক্রেতা-বিক্রেতার মুখে মাস্ক নেই ও সামজিক দূরত্বও মানা হচ্ছে না। হাটকে কেন্দ্র করে নিকটস্থ হোটেল ও চায়ের দোকানগুলোতেও লোকজনে ঠাসা। এতে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ার আশঙ্কায় এলাকাবাসি উদ্বিগ্ন।

সরকারিভাবে কোরবানী উপলক্ষে পশুরহাটের বিষয়ে ২৩ নির্দেশনা জারি হলেও ইলিশিয়া পশুরহাটে বেশিরভাগ নির্দেশনাই মানা হচ্ছে না।

তবে ভিন্নমত পোষণ করেছেন ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বাবলা। তার দাবি, ন্বাস্থবিধিসহ সরকারি প্রতিটি নির্দেশনা মানা হচ্ছে এই হাটে। রোববার (আজ) প্রথমদিনে স্বাস্থ্যবিধি ও লকডাউন রক্ষায় নিয়োজিত আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর লোকজনও বাজারে উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে শনিবার (১০ জুলাই) চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেও ২ চিকিৎসকসহ ১৯ জনের করোনা পজিটিভ হয়েছে। যা করোনার তৃতীয় ঢেউয়ে সর্বাধিকসংখ্যক করোনা আক্রান্ত।

সরকারিভাবে পশুরহাট বসানোর ব্যাপারে বিভিন্ন নির্দেশনা দেয়া হয়েছে স্থানীয় প্রশাসনকে। ওই নির্দেশনা চকরিয়ার বেশির ভাগ বাজারেই মানা হচ্ছে না। বিশেষ করে মাস্ক ও সামাজিক দূরত্বের কোন বালাই নেই পশুর হাটসহ স্টেশন গুলোতে।

ইলিশিয়া হাইস্কুল মাঠে কোরবানির পশুরহাট বসা নিয়ে সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বাবলা বলেন, উচ্চতর আদালতে রিট মামলার প্রেক্ষিতে ইলিশিয়া বাজারটির ইজারা বন্ধ রয়েছে। তাই প্রশাসনের অনুমোদন নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ ও ইউনিয়ন ভূমি অফিস যৌথভাবে খাস কালেকশনের মাধ্যমে হাটটি পরিচালনা করা হচ্ছে।

স্কুল মাঠে হাট বসানো নিয়ে চেয়ারম্যান বাবলা আরও বলেন, কোরবানির পশুরহাটে দূরত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি মানার সুবিধার্থে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবগত করেই এই হাট বসানো হয়েছে। এই হাটে স্বাস্থ্যবিধি পুরোপুরি মানা হচ্ছে।

চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দ শামসুল তাবরীজ বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে ও প্রশাসনের অনুমতি নিয়ে পশুর হাট বসাতে হবে। অনুমতি না নিয়ে ও স্বাস্থ্যবিধি না মানলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!