জানাযা বাদে আসর গ্রামের বাড়িতে

কক্সবাজার আইন কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ এড. বাহার উদ্দিন আর নেই

কক্সবাজার আইন কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ এড. বাহার উদ্দিন আর নেই

আনছার হোসেন
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

কক্সবাজার আইন কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ও কক্সবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির সিনিয়র সদস্য এডভোকেট বাহার উদ্দিন আর নেই। তিনি আজ রোববার (১৩ জুন) রাত ১২টা ১৫ মিনিটের দিকে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজেউন।

তিনি ব্রেনের অসুস্থতাজনিত কারণে রাজধানী ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়।

আজ রোববার (১৩ জুন) আসরের নামাজের পর পেকুয়া উপজেলার উজানটিয়া ইউনিয়নের পূর্ব উজানটিয়া এলাকার রূপালী বাজার গ্রামের পৈত্রিক জামে মসজিদে তাঁর নামাজে জানাযা অনুষ্টিত হবে।

এডভোকেট বাহার উদ্দিনের ছোট ভাই শহিদুল ইসলাম জানান, শনিবার রাত সোয়া ১১টার দিকেও তিনি সুস্থ ছিলেন। তার কিছুক্ষণ পরই শ^াসকষ্টজনিত সমস্যা শুরু হয়। পরে অক্সিজেন সিচুরেশন নিচে নামতে থাকে। অক্সিজেন সিচুরেশন আর উন্নতি না হওয়ায় তাঁকে বাঁচানো যায়নি।

তিনি জানান, এডভোকেট বাহার উদ্দিন নিজেই প্রায় ১০ দিন আগে চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রামের সিএসসিআরে গিয়েছিলেন। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শে তিনি ওখানে ভর্তি হন। পরে অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় তাঁকে পাঁচদিন আগে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় স্কয়ার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ওখানে তিনি এইচসিইউতে (হাই ডেফিসিয়েন্সি ইউনিট) নিবিড় তত্বাবধানে ছিলেন।

এডভোকেট বাহার উদ্দিনের জন্ম কক্সবাজার জেলার পেকুয়া উপজেলাধীন উজানটিয়া ইউনিয়নের উজানটিয়া গ্রামে। ৫ ভাই ও ৭ বোনের মধ্যে তিনি সবার বড়। আইন পেশা শুরু করার পর পরিবার নিয়ে তিনি কক্সবাজার শহরে চলে আসেন। তিনি শহরের উত্তর বাহারছড়ায় (হোটেল নিরিবিলির পেছনে) জমি কিনে স্থায়ী নিবাস গড়েছিলেন।

মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই কন্যা ও এক মেয়ে জামাতাসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন রেখে গেছেন। তার এক ছেলে ছিল, সে এইচএসসি পরীক্ষা দিয়ে রাজধানীর ধানমন্ডি লেকে গোসল করতে গিয়ে কয়েকবছর আগে মারা যায়।

ছোট ভাই শহিদুল ইসলাম জানান, প্রথমে মরদেহ কক্সবাজার শহরে নিয়ে আসার কথা থাকলেও ঢাকা আসার দীর্ঘ সময়জনিত কারণে সেই সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করা হয়েছে। মরদেহ সরাসরি পেকুয়ার উজানটিয়া ইউনিয়নের গ্রামের বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানেই জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে এডভোকেট বাহার উদ্দিনের দাফন করা হবে।

প্রসঙ্গত, কক্সবাজারের সাবেক পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) এডভোকেট সৈয়দ আহমদের আপন চাচাতো ভাই ও ভায়রা এডভোকেট বাহার উদ্দিন।

error: Content is protected!! অন্যের নিউজ নিয়ে আর কতদিন! এবার নিজে কিছু লিখতে চেষ্টা করুন!!