পানিতে বিষাক্ত প্রাণীর ছোবল

নুনিয়াছড়ার মৎস্য ব্যবসায়ী আবুল কালাম আর নেই

নুনিয়াছড়ার মৎস্য ব্যবসায়ী আবুল কালাম আর নেই

বিশেষ প্রতিবেদক
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

কক্সবাজার শহরের উত্তর নুনিয়াছড়ার বাসিন্দা, বিশিষ্ট মৎস্য ব্যবসায়ী আবু সওদাগরের ছোট ভাই ও মরহুম অ্যাডভোকেট গিয়াস উদ্দিনের ভগ্নিপতি এবং দেশ ফিশিংয়ের অন্যতম অংশীদার মৎস্য ব্যবসায়ী আবুল কালাম আর নেই ( ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজেউন)। তিনি বুধবার (১০ জুলাই) বেলা ২টা ১০ মিনিটে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেয়ার পথে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে ইন্তেকাল করেন। তাকে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন হাসপাতালের আইসিইউ থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেয়া হচ্ছিল।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) সকাল ১১টায় নামাজে জানাযা শেষে উত্তর নুনিয়াছড়া বড় কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়েছে। জানাযায় কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, কক্সবাজার সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কায়সারুল হক জুয়েলসহ অসংখ্য মানুষ জানাযায় অংশ নিয়েছেন।

এদিকে মৃত্যুকালে আবুল কালামের বয়স হয়েছিল ৫১ বছর। তিনি স্ত্রী, দুই ছেলেসহ অগণিত গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

সূত্র মতে, আবুল কালাম কয়েকদিন আগে শখের বশে একটি মাছের প্রজেক্টে মাছ শিকারে যান। ওই সময় কোন বিষাক্ত প্রাণী পানির মধ্যেই তাকে ছোবল দেয়। সেই বিষাক্ত প্রাণীর বিষ দ্রুত তার শরীরে ছড়িয়ে পড়ে। প্রথমে তিনি প্রাথমিক চিকিৎসা নিলেও পরে তাকে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু তার শারিরিক অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রামে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়। ওখানে নিয়ে চট্টগ্রামে মেট্রোপলিটন হাসপাতালে আইসিইউতে রাখা হয়। বুধবার দুপুরে একটি বিশেষায়িত এ্যাম্বুলেন্সে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেয়া হচ্ছিল। ঢাকায় নেয়ার পথে এ্যাম্বুলেন্সেই তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

পারিবারিক সূত্র মতে, সাপ নাকি অন্য কোন বিষাক্ত প্রাণী আবুল কালামকে পানিতে ছোবল দিয়েছিল তা তিনিও নিশ্চিত করে বলতে পারেননি। মাছের প্রজেক্টের পানি থেকে উঠার পর আবুল কালাম দেখতে পান, তার পা কালো হয়ে ফুঁলে গেছে।

এদিকে মৎস্য ব্যবসায়ী আবুল কালামের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন উত্তর নুনিয়াছড়া সমাজ কমিটি। তাঁরা মহান আল্লাহ্র কাছে মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

কক্সবাজার ভিশন.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই পাতার আরও সংবাদ
error: Content is protected !!