কক্সবাজারে মাদকের ভিড়ে আবারও আলোচনায় মানবপাচার

একদিকে ইয়াবা নামক ভয়াবহ মাদকের ছড়াছড়ি অন্যদিকে মানবপাচারেরমতো ভয়ঙ্কর কর্মকান্ড নিয়ে অস্থির হয়ে উঠেছে পর্যটন নগরী কক্সবাজার। মাদকের ভিড়ে আবারও সক্রিয়ভাবে মানবপাচার শুরু হওয়ায় নতুন আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে সংশ্লিষ্টদের মাঝে।
জেলাব্যাপী উপকুলীয় এলাকাগুলোর বেশিরভাগ সুবিধাজনক জায়গা এখন মানবপাচারের নিরাপদ রুটে পরিণত হয়েছে। প্রতিদিন জেলার কোথাও না কোথাও মালয়েশিয়াগামী আটকের খবর আসছে। ১৩মে রাত ১০ টারদিকে টেকনাফ বাহারছড়া উপকুল হয়ে মালয়েশিয়া গমনের জন্য অবস্থানকালে ২০ রোহিঙ্গা নারী পুরুষকে আটক করেছে পুলিশ।
সর্বশেষ কক্সবাজারে মালয়েশিয়াগামী অর্ধশতাধিক রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ ও শিশুকে আটক করেছে স্থানীয়রা। তবে পুলিশ বলছে-তাদের কাছে ২৩জন আটকের তথ্য আছে। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে শুকনাছড়ির সমুদ্রচর থেকে তাদের আটক করা হয়।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফরিদ উদ্দিন খন্দকার জানান, কক্সবাজার মেরিন ড্রাইভ সড়কের দরিয়ানগর এলাকায় রাতের আঁধারে এক সঙ্গে বেশ কিছু নারী-পুরুষ ও শিশুকে দেখে স্থানীয়দের সন্দেহ হয়। অনেকক্ষণ পর্যবেক্ষণ করার পর তাদেরকে রোহিঙ্গা হিসেবে সনাক্ত করা হয়। ততক্ষণে এসব লোকজন সমুদ্রের চরে গিয়ে অবস্থান নেয়। তাতে স্থানীয়দের ধারণা মতে, সবাই রোহিঙ্গা। তা নিশ্চিত হয়ে তাদেরকে আটকে রাখে স্থানীয় লোকজন। পরে পুলিশকে খবর দিলে ঘটনাস্থল থেকে নারী-শিশুসহ ২৩ রোহিঙ্গাকে আটক করতে সক্ষম হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, পাচারের অপেক্ষায় থাকা রোহিঙ্গার সংখ্যা প্রায় অর্ধশতাধিক হলেও বাকিরা কৌশলে পালিয়ে যাওয়ায় ২৩ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

আটক রোহিঙ্গাদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করে জানা গেছে, সবাই উখিয়ার বিভিন্ন ক্যাম্প থেকে পালিয়ে সাগরপথে মালয়েশিয়া পাড়ি দেয়ার জন্য সেখানে এসেছে। তাদেরকে কয়েকজন দালাল নিয়ে এসেছে। তবে স্থানীয়দের উপস্থিতি টের পেয়ে দালালরা পালিয়ে গেছে। তবে এরই মধ্যে অধিকাংশ পুরুষেরা পালিয়েছে গেছে বলে জানা গেছে।
এদিকে পুলিশ, র‌্যাব ও বিজিবিসহ আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা সক্রিয়ভাবে কাজ করছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট বাহিনীর দায়িত্বশীল ব্যাক্তিগণ। তারপরও বিষয়টি নিয়ে নতুন করে ভাবনায় ফেলেছে কক্সবাজারবাসীকে।

কক্সবাজার ভিশন.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই পাতার আরও সংবাদ
error: Content is protected !!