দীর্ঘমানব জিন্নাত আলীকে দোকান দিলেন প্রধানমন্ত্রী, নির্মাণ হবে বসতঘরও

সেলফিতে বিরক্ত ‘লম্বা মানুষ’ জিন্নাত!

নিজস্ব প্রতিবেদক, নাইক্ষ‌্যংছড়ি
কক্সবাজার ভিশন ডটকম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে স্বাক্ষাতের পাঁচমাস পর কক্সবাজারের কাছের উপজেলা রামুর গর্জনিয়া ইউনিয়নের বড়বিল গ্রামের বাসিন্দা ও দেশের দীর্ঘতম মানব জিন্নাত আলীর আয়-রোজগারের ব্যবস্থা করেছে প্রশাসন। তাঁকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে গর্জনিয়া বাজারে ০.০০৩৮ একর জমি বরাদ্দ দিয়ে বন্দোবস্তি করে দেয়া হয়েছে।

সেই জমির ওপর নির্মিত দোকানঘর মঙ্গলবার (৯ এপ্রিল) সকাল ১১টায় উদ্বোধন করেন কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন।

ওই সময় দোকানঘরের পাশাপাশি জমির ডিসিআর ও দোকানের সামগ্রী জেলা প্রশাসক দোকানের প্রথম ক্রেতা হিসাবে দুটি টিস্যুর প্যাকেট কিনে নেন।

জেলা প্রশাসক বলেন, ‘জিন্নাত আলী এতদাঞ্চলের সম্পদ। তাঁকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জমিসহ দোকানঘর দেয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী তাঁকে তাঁর আদলে বসতবাড়িও নির্মাণ করে দেয়া হবে।’

অনুষ্ঠানে রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) লুৎফুর রহমান, সহকারি কমিশনার (ভূমি) চাই থোয়াইহলা চৌধুরী, গর্জনিয়া ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাহেদ, গর্জনিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম, কচ্ছপিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আবু মো. ইসমাইল নোমান প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে জিন্নাত আলীর দোকানঘর উদ্বোধনস্থলে ছিল উৎসুক জনতার ঢল।

লম্বা মানুষ জিন্নাত আলীর চিকিৎসার সিদ্ধান্ত সোমবার

বিভিন্ন গণমাধ্যমে অসুস্থ দীর্ঘতম মানব জিন্নাত আলীর খবর প্রচারিত হওয়ার পর স্থানীয় সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল ২০১৮ সালের ২৪ অক্টোবর জিন্নাত আলীকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে স্বাক্ষাত করান। এরপর থেকেই তাঁর ভাগ্য খুলে যায়। জিন্নাতের চিকিৎসার দায়িত্বের পাশাপাশি বসতঘর ও দোকানঘর নির্মাণ করে দেয়ার ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে স্বাক্ষাতের পর জিন্নাত আলী আওয়ামী লীগে যোগ দেন। বিগত সংসদ ও উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তিনি বিভিন্ন গ্রামে গিয়ে নৌকার প্রচারণা চালান।

প্রসঙ্গত, কক্সবাজারের রামু উপজেলার গর্জনিয়া ইউনিয়নের বড়বিল গ্রামের বাসিন্দা দরিদ্র বাবা আমীর হামজার এক মেয়ে, তিন ছেলের মধ্যে জিন্নাত আলী তৃতীয়। অন্য সবার মতো স্বাভাবিক ছিল জিন্নাতের গড়ন। কিন্তু ওর বয়স যখন ১২ বছর, সেই সময় থেকেই দ্রুত উচ্চতা বাড়তে থাকে। প্রতিবছর দুই থেকে তিন ইঞ্চি করে আকৃতি বাড়তে থাকে। ১০ বছরের মধ্যে প্রায় চার ফুট উচ্চতা বেড়ে জিন্নাত এখন ৮ ফুট ২ ইঞ্চির এক লম্বা মানুষ।

কক্সবাজার ভিশন.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই পাতার আরও সংবাদ
error: Content is protected !!