নদীকৃত‌্য দিবসে বাঁকখালী দূষণের উৎস খুঁজলো নদী পরিব্রাজক দল

নদীকৃত‌্য দিবসে বাঁকখালী দূষণের উৎস খুঁজলো নদী পরিব্রাজক দল

বাংলাদেশ নদী পরিব্রাজক দল কক্সবাজার জেলা শাখা আন্তর্জাতিক নদীকৃত্য দিবস পালন করেছে।

বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) নদীকৃত্য দিবসে বাঁকখালী নদী দূষণের প্রধান উৎস চিহ্নিতকরণে বাঁকখালী নদী পরিদর্শন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে অংশগ্রহণ করেন নদীপ্রেমী বিশিষ্ট ক্রীড়াব্যক্তিত্ব ডিএম রোস্তম, পরিবেশপ্রেমী বিশিষ্ট সাংবাদিক আনছার হোসেন, বাংলাদেশ নদী পরিব্রাজক দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সি. যুগ্ন সম্পাদক ইসলাম মাহমুদ, সাংবাদিক ও ‘পরিকল্পিত কক্সবাজার’র সভাপতি আব্দুল আলিম নোবেল।

আলোচনায় প্রতীয়মান হয়, পৌরসভার বর্জ‌্যগুলোই একমাত্র বাকঁখালী নদী দূষণের প্রধান উৎস। দিন দিন যেভাবে দূষিত ও ভরাট হচ্ছে তাতে আগামী দশ বছর পরে কক্সবাজার শহর খুঁজে পাওয়া যাবে নর্দমার ময়লা পানির তলে।

কর্মসূচিতে অংশগ্রহণকারিরা মনে করেন, ‘বাকঁখালী নদী বাচঁলে, বেচেঁ থাকবে কক্সবাজার শহর’। এই কথাটির গুরুত্বের প্রতি জেলা প্রশাসন দৃষ্টি না দিলে কক্সবাজার শহরবাসী অচিরেই হারাতে বসবে প্রাণপ্রিয় এই শহরকে।

অতিথিগণ জেলা প্রশাসন, নদী কমিশন, পরিবেশ অধিদপ্তর ও পৌর কতৃৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, বাকঁখালী নদী রক্ষায় যেন আরো বেশি সোচ্চার হয়ে নদীর অবৈধ দখলদারদের আইনের আওতায় এনে নদী উদ্ধার, পৌরসভার বর্জগুলো অন্যত্র স্তুপ করার ব্যবস্থাগ্রহণ, পাহাড় কাটা রোধে আরো কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে।

বাংলাদেশ নদী পরিব্রাজক দল কক্সবাজার জেলা শাখার সভাপতি এডভোকেট আবু হেনা মোস্তফা কামালের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শামশুল আলম শ্রাবনের সঞ্চালনায় ওই আলোচনা সভায় আরো উপস্হিত ছিলেন সিনিয়র সহ-সভাপতি মোহাম্মদ তুহিন, আইটি সম্পাদক আব্দুল হালিম, সদস্য রমজান আলী নিরব, সদস্য মোঃ আবছারসহ আরো অনেকে।

কক্সবাজার ভিশন.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই পাতার আরও সংবাদ
error: Content is protected !!